গুগলের অ্যান্ড্রয়েড প্রযুক্তির ভুল ধরিয়ে মোটা অঙ্কের ইনাম জিতলেন ভারতীয় যুবক

সফ্‌টওয়্যার বাগ’ (Software Bug) হল কম্পিউটার প্রোগ্রাম বা সিস্টেমের ত্রুটি বা দোষ। যার কারণে কম্পিউটার ত্রুটিপূর্ণ বা অপ্রত্যাশিত আচরণ করতে পারে। গুগলের (Google) অ্যান্ড্রয়েড প্রযুক্তির (Android System) তেমনই একটি ‘সফ্‌টওয়্যার বাগ’ বা ত্রুটি ধরে দিলেন ভারতের রনি দাস (Roni Das)।

জিতে নিলেন লক্ষ টাকার পুরস্কার। সাইবার নিরাপত্তা বিষয়ক বিশেষজ্ঞ রনি সম্প্রতি গুগলের অ্যান্ড্রয়েড ফোরগ্রাউন্ড সার্ভিসের ‘বাগ’ আবিষ্কার করেন। সেই কারণে তাঁকে ৫ হাজার ডলার, ভারতীয় মুদ্রায় প্রায় সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা পুরস্কার দিল আন্তর্জাতিক অন্তর্জাল সংস্থাটি।

 

গুগলের অ্যান্ড্রয়েড ফোরগ্রাউন্ড সার্ভিসের এই বাগ হ্যাকার্সদের কাজটা সহজ করে দিতে পারত। সাধারণত এই ধরনের ত্রুটির মাধ্যমেই অ্যান্ড্রয়েড ফোনের সঙ্গে সংযোগ তৈরি করে হ্যাকার্সরা। এরপর গ্রাহকের ব্যক্তিগত তথ্য হাতিয়ে নিয়ে থাকে তারা। যার ফলে যে কোনও মুহূর্তে সর্বস্বান্ত হতে পারেন গ্রাহকরা।

জানা গিয়েছে, গত মে মাসে গুগলের অ্যান্ড্রয়েড ফোরগ্রাউন্ড সার্ভিসে ত্রুটির বিষয়টি গুগলকে জানিয়ে সতর্ক করেন রনি। গুগলে অ্যান্ড্রয়েড প্রযুক্তির নিরাপত্তা বিষয়ক যে দলটি কাজ করে, তারা জানিয়েছে, অ্যান্ড্রয়েড প্ল্যাটফর্মে একটি অ্যাপ তৈরি করার সময় ‘বাগ’ ধরেন রনি।

 

[আরও পড়ুন: ‘ওমিক্রন’ আতঙ্কের জের, কর্মীদের নিয়ে বড়সড় সিদ্ধান্তের পথে Facebook-Google!]

সংবাদ মাধ্যম সূত্রে জানা গিয়েছে, প্রাপ্য পুরস্কারের কথা জানিয়ে সম্প্রতি অসমের বাসিন্দা রনি দাসকে ইমেল করে গুগল। সেখানে লেখা হয়েছে, আপনি যে গুরুত্বপূর্ণ কাজটি করেছেন, তার স্বীকৃতি হিসেবে আপনাকে পাঁচ হাজার ডলার সাম্মানিক পুরস্কার দেওয়া হচ্ছে। আমরা সাধারণত যে কাজগুলির জন্য পুরস্কার দিয়ে থাকি এটি তার ব্যতিক্রম। আপনি উচ্চমানের সমস্যা নজরে এনেছেন। পরবর্তীকালেও এই বিষয়ে সংস্থার তরফে আপনাকে অবগত করা হবে।

 

জানা গিয়েছে, অ্যান্ড্রয়েড প্রযুক্তির ত্রুটি ধরে দেওয়ার পর থেকেই রনির সঙ্গে নিয়মিত যোগাযোগ রাখছে গুগল। যেহেতু রনির মাধ্যমেই প্রযুক্তিগত ত্রুটিটি ধরা পড়ে এবং তা শোধরানোর কাজ শুরু হয়। কিন্তু ঠিক কী ত্রুটি ছিল, নিরাপত্তার কারণেই সেই বিষয়টিকে প্রকাশ্যে আনতে চায়নি রনি ও সংস্থা গুগল।

 

[আরও পড়ুন: Tech News: এবার ইন্টারনেট ছাড়াই ব্যবহার করতে পারবেন Google Drive, জেনে নিন পদ্ধতি]

প্রসঙ্গত, এর আগেও গুয়াহাটি বিশ্ববিদ্যালয়ের ওয়েবসাইটের বাগ ধরে দেন রনি। তবে এবারে বাগটি অনেক বেশি গুরুত্বপূর্ণ। কারণ তা গ্রাহক নিরাপত্তার প্রশ্ন।

 

 

Leave a Reply

Translate »