দুই মাথা আর ছয় পায়ের কচ্ছপ

যুক্তরাষ্ট্রের ম্যাসাচুসেটসে সম্প্রতি এক বিরল কচ্ছপের বাচ্চা ফুটেছে। ডায়মন্ডব্যাক টেরাপিয়ান কচ্ছপের বাচ্চাটি ফুটেছে পশ্চিম বার্নস্টাবলের একটি বাসায়। বাচ্চাটির দুই মাথা আর ছয়টি পা। ইতোমধ্যে ঝুঁকিতে থাকা প্রজাতির এই বাচ্চাটি আরো বেশি বিরল। কচ্ছপের বাচ্চাটির দুটি স্বতন্ত্র পরিপাকতন্ত্র রয়েছে। প্রতিটি মাথাই আলাদাভাবে শ্বাস নিতে এবং খেতে পারে। এছাড়া এটির দুই পাশে তিনটি করে পা রয়েছে। বর্তমানে কচ্ছপের বাচ্চাটিকে বার্ডসে কেপ ওয়াইল্ডলাইফ সেন্টারের তত্ত্বাবধানে রাখা আছে। সেখানে এটি ভালোভাবেই খাবার খাচ্ছে।

সেন্টারটির ফেসবুক পেজে এর কর্মীরা জানিয়েছেন, জেনেটিক বা পরিবেশগত কারণে দুই মাথার কচ্ছপের বাচ্চা জন্ম নিয়ে থাকতে পারে। মানুষের ক্ষেত্রে এই ধরনের যমজের শরীরের কিছু অংশ জোড়া লাগানো আবার কিছু অংশ স্বাধীন থাকতে পারে। দুই মাথার প্রাণী সাধারণত বেশি দিন বাঁচে না।

তবে সেন্টারটির কর্মীরা বলছেন, এই কচ্ছপের বাচ্চাটির বেঁচে থাকার বিষয়ে তারা আশাবাদী হতে পারছেন। সেন্টারে দুই সপ্তাহ পার করে ফেললেও এর দুই মাথায় সক্রিয় এবং উজ্জ্বল হয়ে উঠছে। বার্ডসে কেপ ওয়াইল্ডলাইফ সেন্টারের এক কর্মী বলেন, তারা প্রতিদিন খাচ্ছে, সাঁতার কাটছে আর প্রতিদিনই ওজন বাড়ছে। একসঙ্গে দুই মাথা ভেতরে ঢোকানো তাদের পক্ষে সম্ভব নয় কিন্তু মনে হচ্ছে পরিবেশ দেখতে তারা একসঙ্গে নড়াচড়া করতে পারছে। ইন্টারনেট।

Leave a Reply

Translate »