পদ্মা সেতু উদ্বোধনের দিন ৩ সেতুর টোল না নেওয়ার প্রস্তাব

দেশের সবচেয়ে বড় অবকাঠামো বহুল কাঙ্ক্ষিত পদ্মা সেতু আগামী ২৫ জুন মহা ধুমধামে উদ্বোধন করা হবে।উদ্বোধন অনুষ্ঠানের এই মহাযজ্ঞে বিপুলসংখ্যক মানুষ অনুষ্ঠানে যোগ দেবেন।

মানুষ যেন নির্বিঘ্নে যাতায়াত করতে পারেন, ওই দিন সেতুর দুই পাশের সড়কে যেন যান চলাচল স্বাভাবিক থাকে- সেজন্য বুড়িগঙ্গা, ধলেশ্বরী ও আড়িয়াল খাঁ সেতুর টোল না নেওয়ার প্রস্তাব করেছে সড়ক পরিবহণ ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সড়ক পরিবহণ ও মহাসড়ক বিভাগ।

সূত্রে জানা গেছে, অর্থ মন্ত্রণালয় থেকে এটি অনুমোদন দেওয়া হয়েছে।এ বিষয়ে সড়ক পরিবহণ ও মহাসড়ক বিভাগ প্রজ্ঞাপন জারি করতে পারে আগামী রোববার।

 

গত ১৩ জুন সড়ক পরিবহণ ও মহাসড়ক বিভাগ থেকে এই প্রস্তাব দিয়ে অর্থ বিভাগে চিঠি দেওয়া হয়।তাতে বলা হয়েছে, ‘আগামী ২৫ জুন বহু প্রতীক্ষিত গর্বের পদ্মা বহুমুখী সেতু উদ্বোধন করতে প্রধানমন্ত্রী সদয় সম্মতি জ্ঞাপন করেছেন। ওই দিন উদ্বোধন অনুষ্ঠানে অংশগ্রহণ করার জন্য আমন্ত্রিত অতিথিদের বহনকারী যানবাহনসহ সাধারণ যানবাহনের চলাচল বৃদ্ধি পাবে। যানবাহনগুলো ঢাকা-মাওয়া মহাসড়কে অবস্থিত বুড়িগঙ্গা সেতু, ধলেশ্বরী সেতু ও আড়িয়াল খাঁ সেতু অতিক্রম করবে। সেতু তিনটিতে বর্তমানে ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে টোল কালেকশন করা হচ্ছে বিধায় যানজটের সৃষ্টি হতে পারে। তাই উদ্বোধনী দিনে টোল আদায় না করার জন্য মন্ত্রিপরিষদ সচিব মৌখিকভাবে অনুরোধ করেছেন।’

 

চিঠিতে আরও বলা হয়, ‘বাংলাদেশ-চীন মৈত্রী (বুড়িগঙ্গা-১) সেতু থেকে ইজারার মাধ্যমে দৈনিক ১ লাখ ৯৯ হাজার ১৪৬ টাকা, ধলেশ্বরী সেতু থেকে বিভাগীয়ভাবে দৈনিক ৫ লাখ ৭৮ হাজার ১৯১ টাকা এবং আড়িয়াল খাঁ (হাজী শরীয়ত উল্লাহ) সেতু থেকে বিভাগীয়ভাবে দৈনিক ৬২ হাজার ৩৪৪ টাকা টোল আদায় করা হয়। অর্থাৎ তিনটি সেতু থেকে একদিনে সর্বমোট ৮ লাখ ৩৯ হাজার ৬৮১ টাকা টোল আদায় হয়। ২৫ জুন মহাসড়ক যানজটমুক্ত রাখার জন্য টোল আদায় মওকুফ রাখা প্রয়োজন।’

 

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!

Leave a Reply Cancel reply