বাংলাদেশে ইলন মাস্কের কার্যক্রম নিয়ে যা জনালো বিটিআরসি

দেশে আন্তর্জাতিক ব্রডব্যান্ড ইন্টারনেট সেবাদাতা সংস্থা স্টারলিংকের প্রি-অর্ডার বিষয়ক কার্যক্রমকে নৈতিকতাবিরোধী ও আইনবিরোধী হিসেবে আখ্যায়িত করেছে টেলিযোগাযোগ নিয়ন্ত্রক সংস্থা বিটিআরস

১৮ মে, বিটিআরসির অফিসিয়াল ফেসবুক পেজে প্রকাশিত এক ভিডিও বার্তায় প্রতিষ্ঠানটির ভাইস-চেয়ারম্যান সুব্রত রায় মৈত্র এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, “আমার জানামতে ইলন মাস্কের স্টারলিংক প্রতিষ্ঠানটি এখনো পর্যন্ত কোনো আবেদন করেনি এই পরিষেবার জন্য। তবে তাদের ওয়েবসাইট পর্যালোচনা করে যেটা দেখা যাচ্ছে যে তারা কার্যক্রম শুরু করেছে। প্রি-অর্ডার নিচ্ছে ৯৯ ডলারে। যেটা সম্পূর্ণ নৈতিকতা বিরোধী, আইন বিরোধী। ”এর আগে বাংলাদেশে স্যাটেলাইটের মাধ্যমে ইন্টারনেটসেবা দেয়ার চিন্তাভাবনা করছে ইলন মাস্কের প্রতিষ্ঠান স্টারলিঙ্ক এমন সংবাদ প্রাকশিত হয় বিভিন্ন গণমাধ্যমে।

সাড়ে আঠারো হাজার নতুন শিক্ষক নিয়োগ শিগগিরই

প্রতিষ্ঠানটি তাদের ওয়েবসাইটে জানায়, আগামী বছরে চালু হতে পারে এ সেবা। বর্তমানে স্টারলিঙ্ক বাংলাদেশ থেকে প্রি-অর্ডার শুরু করেছে। ফি ধরা হচ্ছে ৯৯ ডলার।সেখানে আরও বলা হয়েছে, দেশে ইন্টারনেট পরিষেবা চালুর বিষয়টি স্থানীয় নিয়ন্ত্রকের অনুমোদনের উপর নির্ভর করছে।

মাস্কের মহাকাশযান সংস্থা স্পেসএক্স এবং স্টারলিঙ্কের অফিসিয়াল টুইটার পেইজ অনুযায়ী, স্টারলিঙ্ক বর্তমানে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র, মেক্সিকো, জার্মানি, ফ্রান্স এবং স্পেনের কিছু অংশ সহ ৩২ টি দেশে ব্রডব্যান্ড পরিষেবা চালু করেছে। একই সঙ্গে স্টারলিঙ্ক প্রকাশিত ম্যাপ অনুযায়ী ‘শীঘ্রই আসছে’ চিহ্নিত দেশগুলোর মধ্যে বাংলাদেশসহ রয়েছে ব্রাজিল, সৌদি আরব, পাকিস্তান এবং ভারত। এছাড়া ম্যাপে বলা হয়েছে কোন দেশ স্টারলিঙ্ক ইনস্টলেশন পাকেজ পেতে যাচ্ছে এবং কোন কোন দেশ ওয়েট লিস্টে রয়েছে।

Leave a Reply

Translate »