বিয়ের দাবিতে ভাতিজার বাড়িতে চাচির অনশন

লালমনিরহাটের হাতীবান্ধায় বিয়ের দাবিতে ভাতিজার বাড়িতে অনশন শুরু করেছেন চাচি। এ নিয়ে এলাকায় চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। বুধবার (২৪ আগস্ট) সকালে বিষয়টি জানাজানি হলে উপজেলার সারডুবী গ্রামের জাকিরুল ইসলামের বাড়িতে ভিড় করছে মানুষ।

 

এর আগে মঙ্গলবার সকাল থেকে ওই বাড়িতে অনশন করছেন ওই নারী।

জাকিরুল ইসলাম ওই গ্রামের জব্বার হোসেনের ছেলে। তিনি এলাকায় রঙের কাজ করেন।

 

স্থানীয়রা জানান, চার বছর ধরে তিন সন্তানের জনক জাকিরুল ইসলাম নিজের চাচির সঙ্গে অবৈধ সম্পর্কে জড়িয়ে পড়েন। তাদের সম্পর্কের খবর জানাজানি হলে ১১ আগস্ট চাচা তার স্ত্রীকে তালাক দেন। বিচ্ছেদের ১২ দিন পর দুই সন্তানের জননী চাচি বিয়ের দাবিতে ভাতিজার বাড়িতে অনশন শুরু করেন। এ ঘটনায় ভাতিজা জাকিরুল ইসলাম পালিয়ে গেছেন।

ভুক্তভোগী ওই নারী জানান, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে জাকিরুল বাড়িতে ও বাহিরে বেশ কয়েকবার শারীরিক সম্পর্ক করে। বিয়ের কথা বলে মঙ্গলবার আমাকে বাড়িতে আসতে বলায় আমি এখানে আসি। এখন আমাকে বিয়ে না করলে আত্মহত্যা ছাড়া কোনো উপায় থাকবে না।

 

ওই নারীর বাবা জানান, আমার মেয়ের ওপরে সবকিছু। মেয়ে জানিয়েছে ওই ছেলে কোরআন নিয়ে শপথ করেছে তাকে বিয়ে করবে।

অভিযুক্ত জাকিরুল ইসলামের সঙ্গে মোবাইলে একাধিকবার যোগাযোগের চেষ্টা করেও বক্তব্য পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে বড়খাতা ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান আবু হেনা মোস্তফা জামাল সোহেল জানান, বিষয়টি ইউপি সদস্য সাবলুর মাধ্যমে জেনেছি। এ নিয়ে গ্রামে কয়েকবার সালিশ বৈঠক হয়েছে।

যে দিন ভারত স্বাধীন হল… ১৫ই অগষ্ট, ১৯৪৭

হাতীবান্ধা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম জানান, এ বিষয়ে কোনো পক্ষ থানায় অভিযোগ করেনি।

 

Leave a Reply

Translate »