মেয়েদের স্তন সুন্দর ও আকর্ষণীয় করার নিয়ম-Breast Tips, Implant enlargement মেয়েদের স্তন ঠিক রাখতে যা করা দরকার

মেয়েদের স্তন টাইট ও খাড়া করার উপায় – ব্রেস্ট ঝুলে গেলে করণীয়:- অধিকাংশ পুরুষের কাছেই নারীর শরীরের সবথেকে বেশি আকর্ষণীয় অঙ্গ হচ্ছে তার দুটি স্তন।একজন মহিলাকে সবথেকে আকর্ষণীয় সুন্দর এবং আবেদনময়ী করে তোলে তার দুটি স্তন। আর এই বিষয়টি প্রায় সকল নারীই জানে তার শারীরিক সৌন্দর্য ঠিক রাখার জন্য এবং নিজেকে পুরুষের কাছে আকর্ষণীয় করে রাখার জন্য তার স্তনের সৌন্দর্য ঠিক রাখতে হবে। বিয়ের কিছুদিন পরেই অনেক নারীর স্তন ঝুলে যায় আগের মত তাই টাইট ফিট থাকে না। স্বামীর কাছে তার স্ত্রীকে অতঃপর আকর্ষণীয় মনে হয় না ।তখন মহিলাদের প্রয়োজন হয় স্তনকে সুন্দর এবং শুদিঢ়িও রাখার জন্য।বিভিন্ন ধরনের প্রোডাক্ট বা মেডিসিনের। আবার কিছু কিছু মেয়েদের ক্ষেত্রে দেখা যায় বিয়ের আগেই অল্প বয়সে তাদের স্তন অনেক ঝুলে গেছে।

মিয়া খলিফার উচ্চতা, ওজন, বয়স, প্রেমিক, পরিবার, ঘটনা, জীবনী, Mia khalifa biography

তাদের জন্য আজকে আমাদের কিছু টিপস যে কিভাবে ঘরে বসেই স্তনের ঝুলে পড়া সমস্যা থেকে মুক্তি পেতে পারবেন ও মেয়েদের স্তন টাইট ও খাড়া করার সহজ উপায় ।

স্তনের শেপ ঠিক রাখার প্রথম টিপস :
প্রথমে একটি বাটি নিন তারপর বাটিতে একটা ডিম ভেঙে নিন এবং ডিম ভাঙ্গার পরে এর সাদা অংশটা বাদ দিয়ে শুধু কুসুম টুকু রাখেন এবার এই কুসুমের ভেতর একটি চা চামুসের তিন চামুস শষার রস ঢেলে ভালোভাবে মিস্ট করে, তারপর একটি প্যাক তৈরি করে নিন। এরপর যখন আপনি গোসল করতে যাবেন তখন কমপক্ষে ৩০ মিনিট আগে এই ডিম ডিমের কুসুম এবং শসার রসের এই ক্যাপটি আপনার দুই ইস্তনে খুব ভালোভাবে লাগিয়ে নিন এবং ৩০ মিনিট অপেক্ষা করুন এরপর যখন খুব ভালোভাবে শুকিয়ে যাবে তখন আপনি আলতো হাতে এটা পানি দিয়ে ঘষে পরিষ্কার করে নিয়ে তারপর গোসল করে ফেলবেন।মাত্র ৭ দিন আপনি এই প্যাকটি আপনার দুই স্তনে যদি ব্যবহার করেন তাহলে আপনার স্তনের সেপট পরিবর্তন হচ্ছে সেটা এই সাতদিনে আপনি অনেকটা উপলব্ধি করতে পারবেন। স্তন ঝুলে যাওয়ার সমস্যা রোধে এবং স্তনের শেপ ঠিক রাখার দ্বিতীয় টিপসের জন্য প্রয়োজন হবে ছোট ছোট বরফের টিউব বা টুকরো।

দ্বিতীয় টিপস :
আপনার বাসায় যদি ফ্রিজ থাকে তাহলে এই বরফের টিউব ছোট ছোট টুকরো তৈরি করা তো খুবই সহজ। আপনি গোসল করার আগে এই ছোট ছোট চার পাঁচটা বরফের টুকরো বা কিউব একটা কাপড়ে নিয়ে আপনার স্তনের চারপাশে ঘুরিয়ে ঘুরিয়ে ৫ থেকে ১০ মিনিট ম্যাসেজ করুন টানা ৭ থেকে ১০ দিন আপনি যদি এরকম ৫ থেকে ১০ মিনিট এরকম বরফের টুকরো দিয়ে আপনার স্তন মেসেজ করেন খুব অল্প সময় লক্ষ্য করবেন আপনার স্তন ধীরে ধীরে পরিবর্তন হচ্ছে এই দুটি কৌশল ছাড়াও আপনার অবশ্যই সঠিক খাবার খেতে হবে আপনার খাদ্য তালিকায় রাখতে হবে দুধ ডিম এবং ডাল। এছাড়াও ভিটামিন ক্যালসিয়ামের মত পুষ্টিগুণ রয়েছে এরকম খাবারগুলো খেতে হবে যেমন বাঁধাকপি, ফুলকপি, টমেটো, গাজর ইত্যাদি এসব অবশ্যই আপনার খাদ্য তালিকায় রাখতে হবে। যদি সম্ভব হয় তাহলে প্রতিদিন ১০ থেকে ১৫ মিনিট সাঁতার কাটুন। সাঁতার কাটলে আপনার স্তনের যে পেশীগুলো রয়েছে এগুলো শক্ত হতে সাহায্য করে। এছাড়াও আপনাকে খেতে হবে প্রচুর পরিমাণে পানি চেষ্টা করবে প্রতিদিন ৪ থেকে ৫ লিটারের বেশি বেশি পানি পান করতে হবে কারণ শরিরে যদি পানির অভাব দেখা দেয় তাহলে মেয়েদের ত্বকের যে চামড়া কুঁচকে যায় বা ঝুলে পড়ার মতো সমস্যা দেখা দেয়।

অনেকে আবার স্তনের আকৃতি বা সেপট ঠিক রাখার জন্য দিনরাত সারাক্ষণ ব্রা পড়ে থাকেন। এতে উপকার তো হয় না বরং উল্টো ক্ষতি হয়। আপনি বাইরে যখন বের হবেন তখন অবশ্যই ব্রা পড়বেন কিন্তু আপনি যখন বাসায় রিলাক্স করবেন, কিংবা রাতে যখন ঘুমাতে যাবেন তখন অবশ্যই ব্রা খুলে ঘুমাবেন এবং ঢালা পোশাক পরিধান করবেন। স্তন ঝুলে যাওয়ার অন্যতম কারণ হচ্ছে অত্যাধিক ভাবেই ওজন বেড়ে যাওয়া কিংবা শরীরে অত্যাধিক চর্বি জমা। তাই আপনার যদি হঠাৎ করে অত্যাধিক ওজন বেড়ে যায় এতে করে আপনার স্তন ঝুলে যাওয়ার মতো সমস্যা দেখা দিতে পারে। তাই নিজের স্তন এর সৌন্দর্য ঠিক রাখার জন্য নিজের ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখার চেষ্টা করুন। স্তনের ঠিক রাখার জন্য বা ঝুলে যাওয়ার মত সমস্যা ঠিক করার জন্য কোন ধরনের মেডিসিন কিনবেন না। এগুলো স্তনের উপকার তো করেই না তার থেকে অনেক বেশি ক্ষতি করে থাকে। তাই স্তনের সেপ সঠিক রাখার জন্য প্রথমে যে কৌশল দুটি উল্লেখ করলাম এবং যে খাদ্য অভ্যাস গুলোর কথা বললাম এগুলো যদি আপনি নিয়মিত করতে পারেন তাহলে মাত্র ৭ দিনে আপনার স্তনের শেপ অনেক সন্দুর এবং অনেক আর্কষনীয় করেতে পারবেন।

American Hospital Dubai – Doctor List, Address, Contact Number, Location Map, Appointment

নারীর সৌন্দর্যের একটা গুরত্বপূর্ণ অংশ হল তাদের স্তন। ১২-১৩ বছরে এই লক্ষণ বোঝা যায়। কিছু নিয়ম মেনে চললেই মেয়েরা তাদের স্তনকে সুন্দর রাখতে পারে। নিচের নিয়মগুলো মেনে চললে খুব সহজেই স্তন আকর্ষনীয় করা সম্ভব।

স্তনে তিন ধরনের সমস্যা থাকে-

১/ অপুষ্ট স্তন, ২/ ভীষণ ভারি বা বিশাল মোটা স্তন, ৩/ ঝুলে পড়া স্তন।

স্তনের সোন্দর্য বৃদ্ধির উপায়-

১/ স্তন বড় বা ছোট তা বুঝে নির্দিষ্ট ব্যায়াম করুণ।

২/ খুব টাইট ও নয়,আবার খুব ঢিলে ও নয় এমন ব্রা পরুন।

Breast Tips, Breast Implant enlargement কীভাবে স্তনের আকার স্বাভাবিক ভাবে হ্রাস করা যায়-আপনার জন্য 10 টি সহজ প্রতিকার
৩/ দিনে ২ বার প্রথমে গরম ও পরে ঠান্ডা এ ভাবে কয়েক বার পানি ঢালুন।

 

৪/ বড় ও মোটা স্তন যাদের তারা চর্বি বা স্নেহ জতীয় খাবার থেকে দুরে থাকুন।

৫/ স্তনের সৌন্দর্য বৃদ্ধির জন্য বেশি করে দোলনা খানএবং সাতার কাটুন।

৬/ প্রতিদিন স্নানের আগে বাথরুমে ৫ মিনিট ব্যায়াম করুন যাতে স্তনের পেশিতে চাপ পড়ে।

৭/ রাতে ব্রা খুলে ঘুমান।

৮/ স্তনের বোঁটার সৌন্দর্য বাড়াতে একটা খালি বোতলে গরম পানি ভরে রাখুন। এতে বোতলটা কিছুটা গরম থাকবে। এ অবস্থায় ঐ বোতলের মুখে আপনার স্তনের বোটা ঢুকিয়ে দিন। বোতল ঠান্ডা না হওয়া পর্যন্ত ঢুকিয়ে রাখুন। স্তন এর বোটা বিকাশে এটি সবচেয়ে ভাল পদ্ধতি।

উপরোক্ত নিয়ম ছাড়াও স্তন মালিশের মাধ্যমে স্তন সুন্দর রাখা সম্ভব-

– খাঁটি দুধের সাথে কয়েক ফোঁটা অলিভ অয়েল দিয়ে স্তনে মালিশ করুন।

মালিশ করবেন নিচের থেকে উপরের দিকে। এতে স্তনের রক্ত সঞ্চার স্বাভাবিক হবে ও সুডৌল হবে। মালিশ করার পর ঠান্ডা পানিতে স্নান করুন।

স্তনে ব্যথা হওয়ার কারণ ও প্রতিকার

নারীরা মাঝেমধ্যেই স্তনে ব্যথা অনুভব করেন।  স্তনে ব্যথা করলে অনেক নারীই ভাবেন তার হয়তো স্তন ক্যান্সার হয়েছে।  স্তন ব্যথা অধিকাংশ ক্ষেত্রে এ রোগের সঙ্গে সম্পর্কিত নয়।  স্তন ব্যথার সঠিক কারণ জানা থাকলে অহেতুক আতঙ্ক দূর হবে।

স্তন ব্যথা হরমোনের পরিবর্তনের সঙ্গে সংশ্লিষ্ট।  আবার কিশোরীদের মাসিকের সময়ও এই ব্যথা হতে পারে।  স্তন ব্যথার কারণ ও প্রতিকার নিয়ে বিস্তারিত জানিয়েছেন ইবনেসিনা ডায়াগনস্টিক অ্যান্ড কনসালটেশন সেন্টারের বক্ষব্যাধি ও মেডিসিন বিশেষজ্ঞ ডা. মো. আজিজুর রহমান।

স্তনে ব্যথা আঘাতের কারণে হতে পারে কিংবা অন্য কোনো কারণেও হতে পারে।  দেহে হরমোনের পরিবর্তনে কিশোরী মেয়েদের যখন পিরিয়ড হয় প্রকৃতিগতভাবেই তারা তাদের স্তনে হালকা ব্যথা অনুভব করে থাকেন।  অনেক সময় পিরিয়ড হওয়ার আগেও স্তনে ব্যথা হয়।  পিরিয়ড হওয়ার আগে ও পরে দেহে হরমোনের পরিবর্তনের কারণেই এ ব্যথা হয়ে থাকে। তাই ভয়ের কোনো কারণ নেই। পিরিয়ড শেষ হয়ে গেলে এ ব্যথা থাকে না।

গর্ভকালীন গর্ভধারণের সময় নারীরা স্তনে ব্যথা অনুভব করেন। সাধারণত গর্ভবতীর গর্ভাবস্থা তিন মাস চলাকালীন স্তনে ব্যথা হওয়া শুরু হয়। তখন স্তনের আকার বৃদ্ধি পায় এবং অনেক সময় স্তনের ওপর দিয়ে নীলশিরা দেখা যায়, এর কারণ তখন দেহে অনেক বেশি পরিমাণে রক্ত প্রবাহ হতে থাকে ও হরমোনের পরিবর্তন ঘটে। অনেক সময় নারীদের স্তনে প্রদাহজনিত সমস্যা হয়। এটি ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া অথবা ফাঙ্গাসের আক্রমণে হয়ে থাকে। এ সময় অবশ্যই সতর্ক থাকতে হবে এবং এ ব্যথা থেকে জ্বরও আসতে পারে। ডাক্তারের শরণাপন্ন হওয়া উচিত।

স্তনের ভেতর এক ধরনের সিস্ট হতে পারে, এর ভেতর তরল জাতীয় পদার্থ থাকে এবং এর নাম ব্রিজসিস্ট। স্তনের গ্রন্থি যখন বৃদ্ধি পায় তখন অনেক সময় এ সিস্ট দেখা দেয়। সিস্টের কারণে স্তনে ব্যথা হয়। যখন সিস্টের আকার বৃদ্ধি পায় তখন আপনি নিজেও বুকে হাত দিয়ে এ সিস্ট অনুভব করতে পারবেন। সিস্ট অনুভব করতে পারলে অতি শিগগির স্তন বিশেষজ্ঞের শরণাপন্ন হওয়া উচিত।

মা হওয়ার পর সন্তানকে বুকের দুধ খাওয়ানোর সময়ও অনেক নারী স্তনে ব্যথা পেয়ে থাকেন। বাচ্চাকে দুধ খাওয়ানোর আগে ও পরে সব সময় স্তন পরিষ্কার করে নেয়া ভালো। এতে ভাইরাস, ব্যাকটেরিয়া অথবা ফাঙ্গাস হওয়ার আশঙ্কা থাকে না। অনেক সময় স্তনে ঘা হয়ে থাকে যার কারণে স্তনে ব্যথা হয়। এ সমস্যাটি হয় যখন স্তনের নিপলে ব্যাকটেরিয়া দেখা দেয় এবং বাচ্চাকে দুধ খাওয়ানোর সময় যখন ভাইরাস আক্রমণ করে।

এই নারীর ৩টি পা‚ ৪টি স্তন এবং ২ টি যৌনাঙ্গ | ব্লাঁশর জন্ম থেকেই ৩টি পা‚ ৪টি স্তন এবং ২ টি যৌনাঙ্গ ছিল

এ সমস্যায় অবশ্যই চিকিৎসকের কাছে যাওয়া উচিত। বুকে ব্যথা হওয়ার মারাত্মক কারণ হল স্তন ক্যান্সার। স্তনে ব্যথা অবিরত তখন হবে যখন আপনি দীর্ঘদিন ধরে স্তন ক্যানসারে ভুগবেন।

কী করবেন

জীবন চর্চায় কিছুটা পরিবর্তন এনে স্তনে ব্যথা হওয়ার প্রবণতা কমে আসতে পারে। যেমন-

* স্তনের মাপ অনুযায়ী ব্রা পরুন। ছোট মাপের ব্রা এড়িয়ে চলুন।

* স্বাস্থ্যকর খাদ্য গ্রহণ করুন যাতে চর্বি কম ও পুষ্টি বেশি থাকে।

* দেহের ওজন নিয়ন্ত্রণে রাখুন তাহলে আপনার দেহে হরমোন পরিবর্তনের সমস্যা দূর হবে।

* ভিটামিন বি৬, ভিটামিন বি১ (থায়ামিন) এবং ভিটামিন ই এসব উপাদান দেহের জন্য দরকার। এ উপাদানসমৃদ্ধ খাদ্য গ্রহণ করা উচিত।

যে দুটি সেক্স পজিশনে মেয়েরা সহজে অরগাজম পায়

Breast Tips, Breast Implant enlargement, breast augmentation recovery tips, How to increase breast size in 7 days at home, breast augmentation recovery week by week what to expect after breast augmentation day by day, breast augmentation recovery day by day, blog how to sleep after breast augmentation surgery how painful is breast augmentation under the muscle ,how long do incisions hurt after breast augmentation,beauty tips for girls, Breast Size, tips for beauty, tips for health, ঘরোয়া উপায়, ঝুলে যাওয়া বেস্ট ঠিক করার উপায়, ঝুলে যাওয়া স্তন, দুধ ম্যাসাজ করার পদ্ধতি, দুধ শক্ত করার পদ্ধতি, নারীর স্তন

 

নারীর স্বাস্থ্য, নারীর স্বাস্থ্য টিপস, বুকের গঠন সুন্দর করার উপায়, ব্রেস্ট, ব্রেস্ট ক্যান্সার, ব্রেস্ট ছোট হওয়ার কারণ, ব্রেস্ট নিয়ে খেলা করা, ব্রেস্ট বড় করার ট্যাবলেট, ব্রেস্ট বড় করুন ঘরে বসে, মাত্র ৪৫ দিনে প্রাকৃতিক উপায়ে কীভাবে আপনার স্তনের সাইজ বাড়াবেন, মাত্র ৭ দিনে ব্রেস্ট বা স্তন টাইট করার ঘরোয়া কিছু সহজ উপায়, মেয়েদের স্তন, মেয়েদের স্তন ঠিক রাখতে যা করা দরকার, মেয়েদের স্তন সুন্দর ও আকর্ষণীয় করার নিয়ম স্তনের আকার ছোটস্তনে ব্যথা হওয়ার কারণ ও প্রতিকার, স্তন, স্তন ঝুলে যাওয়ার কারন, স্তন ঝুলে যাওয়ার কারন ও সমাধান, স্তন টাইট, স্তন টাইট করার উপায়, স্তন শক্ত ও টাইট করুন ঘরোয়া উপায়ে, স্তন সুন্দর ও সুডৌল করার কিছু ঘরোয়া টিপস, স্তনের আকার নষ্ট হয় যে ৫টি কারণে, স্তনের সৌন্দর্য বর্ধন

Leave a Reply Cancel reply