রাজবাড়ীতে সনাতন ধর্মালম্বী যুবকের ইসলাম গ্রহণে তোলপাড়

ইসলাম একটি পূর্ণাঙ্গ জীবন ব্যবস্থা। যাহা আল্লাহতালার পক্ষ থেকে নির্ধারিত এবং নির্বাচিত। পৃথিবীর শুরু থেকেই সকল নবী-রাসূলদের ধর্ম ছিল ইসলাম এবং তারা সকলেই ছিলেন মুসলিম। স্বল্প আয়ুর মানব জীবনে ইসলামই হচ্ছে একমাত্র মুক্তির পথ। ইসলামকে যারা মানে এবং মনেপ্রাণে বিশ্বাস করে  তারাই শুধু মুক্তি পাবে। তবে ইসলামকে মানতে হবে পূর্ণাঙ্গ রূপে। ব্যক্তি জীবন, পারিবারিক জীবন, সামাজিক জীবন, রাষ্ট্রীয় জীবন ও আন্তর্জাতিক অঙ্গনসহ সকল ক্ষেত্রে মুক্তির পথ হিসেবে গ্রহণ করতে হবে একমাত্র ইসলামকেই।

সম্প্রতি, মুসলমানদের আচার-ব্যবহার, ধর্মীয় রীতিনীতি ও সংস্কৃতিতে অনুপ্রাণিত হয়ে রাজবাড়ীর গোয়ালন্দে স্বেচ্ছায় ও স্বজ্ঞানে সনাতন ধর্ম  থেকে ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছেন দীপক রায় (৩০) নামে এক যুবক। ধর্মান্তরিত হবার পর তার পছন্দমতো নিজের বর্তমান নামে রেখেছেন মোহাম্মদ আলী। ঘটনাটি জানাজানি হবার পর গোটা উপজেলায় হৈ-হুল্লোড়ের পাশাপাশি ব্যাপক চাঞ্চল্যের সৃষ্টি করছে।

ধর্মান্তরিত মোহাম্মদ আলী গোয়ালন্দ উপজেলার  দৌলতদিয়া ইউনিয়নের দক্ষিণ দৌলতদিয়ার সিরাজ খাঁর পাড়ার (হাট) দূর্গা রায়ের পুত্র।

সম্প্রতি সোশ্যাল মিডিয়ায় ওমরাহ হজ্জের ছবি পোষ্ট করে তার ধর্মান্তরিত হওয়ার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন স্বয়ং মোহাম্মদ আলী।

পুরস্কার নয়, দুর্নীতিকে লাথি মেরেছি : বডিবিল্ডার শুভ

এবিষয়ে তার অনুভূতি জানতে চাইলে নব মুসলিম মোহাম্মদ আলী বলেন, ছোট বেলা থেকেই মুসলমানদের সাথে মিলেমিশে বড় হয়েছি। আমার কিশোরবেলায় খেলাখুলা, পড়ালেখাসহ যুবক বয়সের বেশিরভাগ সময়ই মুসলিম বন্ধুবান্ধবদের সান্নিধ্যে অতিবাহিত হয়েছে। মুসলিম বন্ধুদের  ইসলামিক ধর্মীয় রীতি নীতি বিনয়ী আচরণ আমাকে সর্বদাই মুগ্ধ করতো। বিশেষ করে মুসলমানদের দিনে ৫ ওয়াক্ত আজান আমাকে মুগ্ধ করত। আজানের সময় সবকল কাজকর্ম বিরত রেখে মন দিয়ে আজান শুনতে আমার ভীষণ ভালো লাগত। এক দিন পাশের গ্রামে এক ওয়াজ মাহফিলে অংশ নিয়ে হুজুরের বয়ান শুনে আমার চোখে পনি এসে যায়।

ইসলামে নারীদের য সম্মান দান ও তাদের জীবনধারণের জন্যে যে সুশৃঙ্খল নিয়ম নির্ধারণ করা হয়ে তার ভূয়সী প্রসংশা করে তিনি বলেন, বিশ্ব নবী (সঃ) জীবন আদর্শ ও ধর্মীয় রীতি নীতি মেয়েদের পর্দার বিষয়টি  আমার খুব ভালো লাগে। কারন আমি বিশ্বাস করি এক জন পর্দাশীল নারী সে অন্য পুরুষের দৃষ্টি আকর্ষণ থেকে সর্বদাই নিজে কে নিরাপদে রাখতে পারে। এবং মহাগ্রন্থ আলকুরআন ও ইসলাম সম্পর্কিত বইগুলো পড়ে এবং নিজে থেকে গবেষণা করে মনপ্রাণ থেকে অনুপ্রাণিত হয়েই আমি ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করেছি।

নব মুসলিম মোহাম্মদ আলী আরো বলেন,পরিবার থেকে আমার ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার বিষয়টি মানতে নারাজ ছিলেন সকলেই। আমাকে ভুল বোঝানোর শত চেষ্টার একপর্যায়ে নানাভাবে চাপ সৃষ্টি এমনকি ভয়ভীতি দেখাতেও ভুল করেননি আমার পরিবারসহ অনেক প্রভাবশালীরাও।

তিনি আরো বলেন,আমি আমার সিদ্ধান্তে অটল থেকে ইসলামে দিক্ষিত হওয়ার বিষয়টি তুলে ধরে আমার ইসলাম ধর্ম গ্রহণের  বিষয়টি পরিবারের মাঝে আনুষ্ঠানিকভাবে জানিয়েছি আমি নিজেই।

মোহাম্মদ আলী বলেন, পরিবার থেকে আমার ইসলাম ধর্ম গ্রহণ করার বিষয়টি মানতে নারাজ ছিলেন সকলেই। আমাকে ভুল বুঝানোর শতভাগ চেষ্টা চালিয়েও ব্যর্থ হয়ে  আমার পরিবারসহ নানারকম ভয়-ভীতি দেখাতেও ভুল করেননি প্রভাবশালীরাও।

মোহাম্মদ আলী আরো জানান,পরিবার ও সমাজ থেকে বিতারিত হয়ে পরবর্তীতে একজন মুসলিম নারীকে ইসলামী শটিয়াহ মোতাবেক বিবাহ করে নতুন জীবন শুরু করেছি।

বর্তমানে আমি সৌদি আরবে আমার প্রিয়  নবী হযরত মোহাম্মদুর রাসুলুল্লাহ (সঃ) এর জন্মভূমিতে প্রবাস জীবন কাটাচ্ছি । আমার অনেক দিনের ইচ্ছে ছিল আমার প্রিয় নবী করিম (সঃ) রওজা মুবারক যিয়ারত করার। তাই আমি  উমরাহ হজ্জ করতে পেরেছি আমার স্বপ্ন পূরণ হয়েছে। আমার জন্যে সকলে দোয়া করবেন আমি যেন ইসলামের আদর্শ, নিয়মনীতি মেনে একজন পূরিপূর্ণ মুসলিম হিসেবে মৃত্যবরণ করতে পারি।

Leave a Reply

%d bloggers like this: