হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালের মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ল্যাব ) সাইফুল ইসলামকে (২৮) পিটিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালের মেডিকেল টেকনোলজিস্ট (ল্যাব ) সাইফুল ইসলামকে (২৮) পিটিয়ে হত্যা করেছে দুর্বৃত্তরা।

 

মঙ্গলবার (২৮ ডিসেম্বর) সন্ধ্যায় সিলেট ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় তিনি মারা যান। দুপুরে তাকে কুপিয়ে ক্ষতবিক্ষত করলে আশংকাজনক অবস্থায় সিলেটে পাঠানো হয়।

 

নিহত সাইফুল ইসলাম জেলার মাধবপুর উপজেলার মনতলা গ্রামের নজরুল ইসলামের ছেলে।

 

হাসপাতালের আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. মো. মমিন উদ্দিন বলেন, ‘সাইফুল ইসলাম গত বছর হাসপাতালে যোগদান করেন। এটিই তার চাকরির প্রথম কর্মস্থল। তিনি খুবই ভালো ও দায়িত্বশীল ছিলেন। এখানে যত করোনার স্যাম্পল কালেকশন হয়েছে তার অধিকাংশই তিনি সংগ্রহ করেছেন।’

 

তিনি আরও বলেন, ‘শুনেছি সকালে করোনার স্যাম্পল কালেকশনে দেরি হওয়া নিয়ে কারও সঙ্গে বাগবিতণ্ডা হয়। এনিয়ে দুপুরে দুর্বৃত্তরা মাথায় জখম করে। এতে তার মাথায় আঘাত পেলে দুপুর দেড়টার দিকে হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। আশংকাজনক অবস্থায় তাকে সিলেট প্রেরণ করা হলে সেখানে সন্ধ্যায় তিনি মারা যান।’

 

হাসপাতালের মেডিকেল টেকনোলজিস্ট বিভাগের প্রধান ইমতিয়াজ আহমেদ তুহিন বলেন, সকালে স্যাম্পল কালেকশন নিয়ে ঝগড়া হয়েছে শুনেছি। কিন্তু তিনি ঝগড়া করার মতো লোক নন। এর জেরে এত বড় ঘটনা ঘটে যাবে বলা ছিল না।’

 

হবগিঞ্জ সদর মডেল থানার পরিদর্শক (তদন্ত) ফেরদৌস মোহাম্মদ জানান, তদন্তের মাধ্যমে দোষীদের চিহ্নিত করে দ্রুত আইনানুগ ব্যবস্থা নেয়া হবে।

Leave a Reply

Translate »