আমাদের বিদ্যালয় রচনা (4টি রচনা) | OUR SCHOOL

আমাদের বিদ্যালয় রচনা ১

ভুমিকাঃ শিক্ষা জাতীর মেরুদণ্ড। এক সময় শিক্ষা ছিল আশ্রমকেন্দ্রিক।আশ্রমে থেকেই গুরুর কাছে থেকেই শিক্ষা গ্রহণ করতে হতো।আদর্শ বিদ্যালয় হলো এক একটি আশ্রম সরুপ। এমনি একটি আশ্রম আমার বিদ্যালয়। এটির নাম  কাজীফরি প্রাইমারি স্কুল।

প্রতিষ্ঠাঃ কাজীফরি প্রাইমারি বিদ্যালয় ১৯৭২ সালে প্রতিষ্ঠিত হয়। প্রথম থেকে অষ্টম শ্রেণি পর্যন্ত এ স্কুল শিক্ষা দান করা হয়।

অবস্থানঃ এটি ঢাকা মহানগরির কেন্দ্রবিন্দুতে আমাদের বিদ্যালয় অবস্থিত। বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার জন্য ভালো ব্যবস্থা রয়েছ।  মহানগরের যেকোনো এলাকা থেকে বিদ্যালয় সহজে যাওয়া যা।

বিদ্যালয়ের পরিবেশঃ  বিদ্যালয়ে বিভিন্ন ধরনের  গাছ রয়েছে। এখানে একটি বিশাল চারতলা ভবন রয়েছে। প্রতিটি শ্রেণিতে তিনটি করে শাখা রয়েছ। প্রতিটি শাখার জন্য রয়েছে। প্রতি শাখার জন্য রয়েছে আলাদা ও পরিপাটি শ্রেনিকক্ষ। ৯০ জন শিক্ষকের জন্য রয়েছে ৩টি সুন্দর কক্ষ। একটি বড় পাঠাগার  আছে। সেখানে বিভিন্ন ধরনের বই রয়েছ।  বিদ্যালয়ের সামনে বিশাল মাঠ রয়েছে।

আনুষ্ঠানাদিঃ ক্লাসগুলো সারা বছর বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের আয়োজন করে থাকে। এঅনুষ্ঠানে দেশবিদেশর বিখ্যাত ব্যক্তি বর্গ আসেন।

খেলাধুলাঃ আমাদের খেলার মাঠ অনেক বড়। মাঠে নিয়মিত খেলা হয়। আমাদের বিদ্যালয়ে ফুটবল, ক্রকেট ও বাস্কেটবল টিম আছ।

উপসংহারঃ একটি আর্দশ বিদ্যালয় বলতে যা বোঝায়,  আমার বিদ্যালয় তাই। এ প্রতিষ্ঠানের একটি শিক্ষাথী হতে পারে আমি গর্বিত।  আমি দোয়া করি,  যেন এপ্রতিষ্ঠানটির আরো উন্নত হোক।

আমাদের বিদ্যালয় রচনা ২

সূচনা: আমাদের বিদ্যালয়ের নাম বিদ্যাসাগর উচ্চ বিদ্যালয়। ইহা পশ্চিমবঙ্গের বর্ধমান জেলায় অবস্থিত।

ইতিহাস ও ঐতিহ্য: আমাদের বিদ্যালয় আমাদের জেলার এক অন্যতম শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। ইহা ১৯৬৫ সনে স্থাপিত হয়। যাত্রারম্ভে ইহা একটি বেসরকারী প্রতিষ্টান ছিল কিন্তু পরবর্তীকালে সরকারি বিদ্যালয় পরিণত হয়। আমাদের অঞ্চলের বৈশিষ্ট্য জ্ঞানী ব্যক্তিবর্গের প্রচেষ্টায় এই স্কুল স্থাপিত হয়।

অবস্থান: আমাদের স্কুল বর্ধমান জেলার উত্তর-পশ্চিম দিকে অবস্থিত। জেলার মহকুমা থেকে আমাদের স্কুলের দূরত্ব অতি সামান্য। জাতীয় রাস্তার পাশে থাকায় এই স্কুলের যোগাযোগ ব্যবস্থা খুবই উন্নত।

অবকাঠামো: আমাদের বিদ্যালয়ে আঠারো টি শ্রেণিকক্ষ, দুইটি শিক্ষকদের কক্ষ এবং একটি কম্পিউটার ল্যাব রয়েছে। তাছাড়াও আমাদের বিদ্যালয়ে একটি লাইব্রেরী এবং একটি সাইন্স ল্যাবরেটরি ও আছে। ছাত্র-ছাত্রীদের সুবিধার্থে আমাদের স্কুলের সম্মুখে একটি খেলার মাঠ ও পার্কিংয়ের ব্যবস্থা আছে।
আমাদের স্কুলে প্রায় আট শত ছাত্র-ছাত্রী রয়েছে। তাদেরকে সর্বমোট পনেরো জন শিক্ষক শিক্ষিকা নিয়মিত শিক্ষা দান করেন।

See also  (৫টি রচনা) সময়ানুবর্তিতা রচনা | সময়ের মূল্য রচনা

সহপাঠ ক্রমিক কার্যাবলী: প্রত্যেকদিন সমাবেশের মধ্যে দিয়েই আমাদের স্কুল আরম্ভ হয়। সমাবেশে শিক্ষকরা বিভিন্ন বিষয়ের উপর বক্তৃতা দিয়ে থাকেন এবং ছাত্ররা অংশগ্রহণ করে বিভিন্ন বিষয়ের উপর তাদের মতামত উপস্থাপন করে। তাছাড়া বিভিন্ন সময়ে নানারকম সামাজিক এবং ধার্মিক উৎসব, বিশেষ বিশেষ দিবস খুব গুরুত্ব সহকারে পালন করা হয়।

উপসংহার: আমাদের বিদ্যালয় ভালো শিক্ষা এবং ভালো ফলাফলের জন্য পুরো জেলায় শিক্ষানুরাগীদের মধ্যে এক বিশেষ স্থান করে নিয়েছে। প্রকৃত অর্থে শিক্ষার আলো ছড়িয়ে দেওয়ার জন্য সবাই বিদ্যালয়ের কল্যাণ কামনা করে। আমি এই বিদ্যালয়ের ছাত্র হিসাবে অনেক গর্ববোধ করে থাকি।

শেখ রাসেলের জন্মবার্ষিকী উপলক্ষে রচনা প্রতিযোগিতা 2021 || ষষ্ঠ থেকে দশম শ্রেণি রচনা | শেখ রাসেল আমাদের বন্ধু শব্দ সংখ্যা 800

আমাদের বিদ্যালয় রচনা ৩

ভূমিকা: শিক্ষা জাতির মেরুদণ্ড। শিক্ষার জন্য চাই আদর্শ বিদ্যাপীঠ। এক সময় শিক্ষা ছিল আশ্রমে কেন্দ্রিক। শিক্ষার্থী সেই সময় আশ্রমে থেকেই গুরুর কাছ থেকে শিক্ষা লাভ করত। আদর্শ বিদ্যালয় এক-একটি আশ্রমবিশেষ। এমনই একটি আশ্রম আমার বিদ্যালয়। বিদ্যালয়ের নাম স্বপ্নিল উচ্চ-মাধ্যমিক বিদ্যালয়।

প্রতিষ্ঠা: স্বপ্নিল উচ্চ-মাধ্যমিক বিদ্যালয় ১৯৬৬ খ্রিষ্টাব্দে প্রতিষ্ঠিত। তৃতীয় শ্রেণি থেকে দ্বাদশ শ্রেণি পর্যন্ত এ-বিদ্যালয়ে পাঠদান করা হয়। বিদ্যালয়টি ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের শ্রেষ্ঠ বিদ্যাপীঠ হিসেবে বেশ কয়েকবার স্বীকৃক্তি লাভ করেছে।

অবস্থান: ঢাকা মহানগরীর কেন্দ্রবিন্দুতে আমাদের বিদ্যালয় অবস্থিত। জাতীয় সংসদ ভবনের পশ্চিম পাশে মনােম পরিবেশে বিদ্যালয়। এর উত্তর পাশে একটি ব্যস্ত রাস্তা। বিদ্যালয়ে আসা-যাওয়ার জন্য ভালাে ব্যবস্থা রয়েছে। মহানগরীর যেকোনাে এলাকা থেকে বিদ্যালয়ে সহজেই আসা যায়।

বিদ্যালয়ের পরিবেশ: বিদ্যালয়ে বিভিন্ন ধরনের গাছ রয়েছে। বিশাল প্রাঙ্গণে দুটি দীর্ঘকায় চারতলা ভবন। তৃতীয় থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত তিনটি করে শাখা এবং একাদশ ও দ্বাদশ শ্রেণিকে সাতটি করে শাখা রয়েছে। প্রতি শাখার জন্যই রয়েছে আলাদা ও পরিপাটি শ্রেণিকক্ষ। অধ্যক্ষ ও মূল উপাধ্যক্ষের নিজের কক্ষ রয়েছে। বিভিন্ন অংশে বিভক্ত একটি বড় অফিম আছে। শিক্ষকের জন্য রয়েছে তিনটি সুন্দর কক্ষ। একটি বড় পাঠাগার আছে। সেখানে বিভিন্ন ধরনের বই রয়েছে। বিদ্যালয় ভবনের সামনে বিশাল মাঠ।

শিক্ষার্থী : আমাদের বিদ্যালয়ে প্রতিটি শ্রেণিতে তিনটি করে শাখা । প্রতি শাখায় পঞ্চান্ন জন করে শিক্ষার্থী। তৃতীয় থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত মােট শিক্ষার্থীসংখ্যা তেরশাে পঞ্চাশ এবং কলেজ শাখার শিক্ষার্থীসংখ্যা এক হাজার চারশাে। সকালে সব শিক্ষার্থী যখন জাতীয় সংগীত পরিবেশনের জন্য একসঙ্গে দাঁড়াই, তখন মনে হয় এ যেন শিক্ষার্থীদের এক বিশাল মিলনমেলা।

শিক্ষক : আমাদের অধ্যক্ষ একজন ব্যক্তিত্বসম্পন্ন মানুষ। আমাদের দুজন উপাধ্যক্ষ আছেন। প্রিয় শিক্ষকবৃন্দ আমাদের সন্তানের মতাে স্নেহ করেন এবং আলােকিত মানুষ হবার শিক্ষা দেন। আমরা তাদের গভীরভাবে শ্রদ্ধা করি।

লেখাপড়ার পদ্ধতি : সপ্তায় ছয় দিন আমাদের বিদ্যালয় খােলা থাকে। শুক্রবার সাপ্তাহিক ছুটির দিন। প্রতিদিন আমাদের ছয়টি ক্লাস হয়। প্রতি সপ্তাহে রবি, মঙ্গল ও বৃহস্পতিবার, আগের সপ্তাহে পড়ানাে হয়েছে এমন সব বিষয়ে পরীক্ষা দিতে হয়। এ ছাড়াও বছরে তিনটি পরীক্ষা হয়। সাপ্তাহিক ও টেস্টের ৪০% এবং ত্রৈমাসিক, ষান্মাসিক ও বার্ষিক পরীক্ষার ফলাফলের ভিত্তিতে চূড়ান্ত ফল তৈরি করা হয়। পরীক্ষার কারণে আমাদের পড়ালেখার টেবিল থেকে বিচ্ছিন্ন হওয়ার উপায় থাকে না।

গবেষণাগার : বিজ্ঞানের বিষয়গুলাের ব্যবহারিক ক্লাসের জন্য পদার্থবিদ্যা, রসায়ন, গণিত, জীববিজ্ঞান গবেষণাগার এবং কম্পিউটার ল্যাব রয়েছে।

পাঠ্যক্রম-অতিরিক্ত বিষয়ের চর্চা : আমাদের বিদ্যালয়ে কতগুলাে ক্লাব আছে। যেমন- নাট্যদল, সাংস্কৃতিক সংগঠন, বিতর্ক ক্লাব, দাবা ক্লাব, সায়েন্স ক্লাব, সংগীতদল, পাঠচক্র ও শরীরচর্চা ক্লাব।

অনুষ্ঠানাদি : ক্লাবগুলাে সারা বছর বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের আয়ােজন করে থাকে। এসব অনুষ্ঠানে দেশ-বিদেশের বিখ্যাত ব্যক্তিবর্গ আসেন। তাঁদের সঙ্গে পরিচিত হবার সুযােগ যেমন আমরা পাই, তেমনি তাঁদের কাছ থেকে নতুন নতুন তথ্য জানতে পারি।

খেলাধুলা : আমাদের বিদ্যালয়ের খেলার মাঠটি অনেক বড়। মাঠে নিয়মিত খেলাধুলা হয়। প্রতিদিন বিকেলে মৌসুম অনুযায়ী ফুটবল, ক্রিকেট, ভলিবল, বাস্কেটবল, হ্যান্ডবল ও ব্যাডমিন্টন খেলা হয়। আমাদের বিদ্যালয়ে ফুটবল, ক্রিকেট ও বাস্কেটবল টিম আছে। বিভিন্ন প্রতিযােগিতায় অংশগ্রহণ করে আমরা অনেক পুরস্কার লাভ করেছি।

পরীক্ষার ফল: প্রতিবছরই আমাদের বিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীরা পরীক্ষায় ভালাে ফল অর্জন করে। পিএসসি, জেএসসি, এসএসসি ও এইচএসসি পরীক্ষার ফল সবার দৃষ্টি কাড়ে। মাধ্যমিক ও উচ্চ-মাধ্যমিক পরীক্ষায় আমাদের বিদ্যালয় প্রতিবছরই সেরা দশে থাকে।

নিজস্ব বৈশিষ্ট্য : পরীক্ষার ভালাে ফল এবং ক্লাবের বিভিন্ন কর্মকাণ্ডের জন্য আমাদের বিদ্যালয়ের সুনাম রয়েছে। আমাদের বিদ্যালয়ের শিক্ষাপদ্ধতি ও নিয়ম-শৃঙ্খলা অন্য সব প্রতিষ্ঠান থেকে ব্যতিক্রমী।

উপসংহার: একটি আদর্শ বিদ্যালয় বলতে যা বােঝায়, আমাদের বিদ্যালয় তাই। মনােরম পরিবেশ, জ্ঞানী-গুণী শিক্ষক আর সেরা ফলাফলের জন্য আমাদের বিদ্যালয় অতুলনীয়। এ-প্রতিষ্ঠানের একজন শিক্ষার্থী হতে পেরে আমি নিজেকে ধন্য মনে করি। আমাদের বিদ্যালয় সব সময় দেশের সেরা শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান হােক- এই আমার প্রত্যাশা।

আমাদের বিদ্যালয় রচনা ৪

সূচনা :“বিদ্যালয়, মোদের বিদ্যালয়,এখানে সভ্যতারই ফুল ফোটানো হয়।”

বিদ্যালয় হচ্ছে ভালো মানুষ গড়ার কারখানা। আমি যে বিদ্যালয়ে পড়ালেখা করি তার নাম ঘোপাল সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়। এ বিদ্যালয়ে প্রথম শ্রেণি হতে দশম শ্রেণি পর্যন্ত পড়ানো হয়।

অবস্থান : আমাদের বিদ্যালয়টি ফেনী জেলার ছাগলনাইয়া থানার ঘোপাল গ্রামে অবস্থিত। বিদ্যালয়ে আসার জন্য ভালো ব্যবস্থা রয়েছে। আশপাশের যেকোনো গ্রাম থেকে সহজেই আমাদের স্কুলে আসা যায়।

বিদ্যালয়ের পরিবেশ : বিদ্যালয়ে বিভিন্ন ধরনের গাছ রয়েছে। বিশাল প্রাঙ্গণে দুটি দীর্ঘকায় চারতলা ভবন। তৃতীয় থেকে দশম শ্রেণি পর্যন্ত তিনটি শাখা রয়েছে। প্রতি শাখার জন্যই রয়েছে আলাদা ও পরিপাটি শ্রেণিকক্ষ। প্রধান শিক্ষক ও দুজন সহকারী প্রধান শিক্ষকের নিজস্ব মনোরম কক্ষ রয়েছে। বিভিন্ন অংশে বিভক্ত একটি বড় অফিস রুম আছে। পঞ্চাশ জন শিক্ষকের জন্য রয়েছে তিনটি সুন্দর কক্ষ। সেখানে বিভিন্ন ধরনের বই রয়েছে। বিদ্যালয় ভবনের সামনে আছে বিশাল মাঠ।

ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষকমণ্ডলী : আমাদের বিদ্যালয়ে ছাত্র-ছাত্রীর সংখ্যা প্রায় ৮০০। শিক্ষকগণ আমাদেরকে অত্যন্ত আন্তরিকভাবে পড়ান। আমরাও তাঁদের গভীরভাবে শ্রদ্ধা করি।

লাইব্রেরি : আমাদের বিদ্যালয়ের লাইব্রেরিটি বেশ সমৃদ্ধ। এখানে নানা ধরনের বই রাখা আছে। লাইব্রেরি থেকে বই ধার করে বাড়িতে নিয়েও পড়া যায়।

খেলাধুলা : আমাদের বিদ্যালয়ের সামনে আছে বড় একটি খেলার মাঠ। এখানে আমরা নানা রকম খেলাধুলা করি। বিদ্যালয়ে একজন ক্রীড়া শিক্ষক আছেন। তিনি নিয়মিত খেলাধুলা ও শরীরচর্চা অনুশীলন করে থাকেন।

সৃজনশীল কর্মকাণ্ড : আমাদের বিদ্যালয়ে অনেকগুলো ক্লাব আছে। যেমন- বিতর্ক ক্লাব, বিজ্ঞান ক্লাব, আবৃত্তিচর্চা ক্লাব, শরীরচর্চা ক্লাব ইত্যাদি। এগুলোর মাধ্যমে আমরা বিভিন্ন সৃজনশীল কর্মকাণ্ডে অংশ নিয়ে থাকি।

অনুষ্ঠান : আমাদের বিদ্যালয়ে নানা ধরনের অনুষ্ঠানের আয়োজন করা হয়। সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের জন্য আমাদের বিদ্যালয়টির বেশ সুনাম রয়েছে। প্রতিবছর ফেব্রুয়ারি মাসে আমাদের বিদ্যালয়ের বার্ষিক ক্রীড়া প্রতিযোগিতা ও সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান হয়ে থাকে। এছাড়াও আন্তর্জাতিক মাতৃভাষা দিবস, স্বাধীনতা দিবস, বিজয় দিবসসহ বিভিন্ন দিবসে নানা রকম আয়োজন থাকে।

ফলাফল : প্রাথমিক শিক্ষা সমাপনী পরীক্ষায় প্রতিবছর আমাদের বিদ্যালয় থেকে ট্যালেন্টপুলে বৃত্তিসহ বেশ কয়েকজন ছাত্র-ছাত্রী অ+ পায়। জেএসসি ও এসএসসি পরীক্ষায় ফলাফলও সবার নজর কাড়ে।

উপসংহার : আমাদের বিদ্যালয়টি একটি আদর্শ বিদ্যালয়। এরূপ একটি বিদ্যালয়ে পড়ালেখা করতে পেরে আমি সত্যিই গর্বিত।

আরও পড়ুনStephen Hawking Biography

বন্ধুরা, এই পোস্টে আমরা আপনাকে  পোস্টটি সম্পর্কে বলেছি। আশা করি আপনি এই পোস্টটি পছন্দ করবেন।

আপনার এই পোস্টটি কেমন লেগেছে, মন্তব্য করে আমাদের জানান এবং এই পোস্টে কোনও ত্রুটি থাকলেও আমরা অবশ্যই এটি সংশোধন করে আপডেট করব।

 

Biography, Famous Quotes ও উক্তি সমূহ লেখাটি ভালো লেগে থাকলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করো। এই ধরনের লেখার নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজটি ফলো ।

 

ডেইলি নিউজ টাইমস বিডি ডটকম (Dailynewstimesbd.com)এর ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব ও ফেসবুক পেইজটি ফলো করুন করুন।

Subscribe to the Daily News Times bd.com YouTube channel and follow the Facebook page.

 

উক্ত আর্টিকেলের উক্তি ও বাণীসমূগ বিভিন্ন ব্লগ, উইকিপিডিয়া এবং .. রচিত গ্রন্থ থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।

আরও পড়তে পারেন: ভুলে গেছেন ফোনের পাসওয়ার্ড, পিন বা প্যাটার্ন? কীভাবে সেকেন্ডে করবেন আনলক, জানুন

আরও পড়ুনকালিদাস পণ্ডিতের ধাঁধাঁ ১। পর্ব moral stories Kalidas Pondit In Bangla কালিদাস

Read More:  কালিদাস গোপাল ভাঁড় খনার জনপ্রিয় বচন ধাঁধাঁ 1000 | শালি দুলাভাই এর রসের ধাঁধা | Bangla Dhadha সমগ্র কালেকশন

আরো জানুন >> জ্বর-সর্দি নিরাময়ের প্রাকৃতিক বা ঘরোয়া উপায়

 

 

 

তথ্যসূত্র: Wikipedia, Online

Sourc of : Wikipedia, Online Internet

 

 ছবিঃ ইন্টারনেট

দৃষ্টি আকর্ষণ এই সাইটে সাধারণত আমরা নিজস্ব কোনো খবর তৈরী করি না.. আমরা বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবরগুলো সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি.. তাই কোনো খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কতৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। ধন্যবাদ সবাইকে।

 

আমাদের বিদ্যালয় রচনা ৫ম শ্রেণি, আমাদের বিদ্যালয় রচনা ক্লাস 2, আমাদের বিদ্যালয় রচনা ১ম শ্রেণি, আমাদের বিদ্যালয় রচনা ৭ম শ্রেণি, ছোটদের রচনা আমাদের বিদ্যালয়, আমাদের বিদ্যালয় সম্পর্কে ১০টি বাক্য, আমাদের মাদ্রাসা রচনা, বিদ্যালয় বাক্য রচনা,

ছোটদের রচনা আমাদের বিদ্যালয়, আমাদের বিদ্যালয় রচনা বাংলা, আমাদের বিদ্যালয় রচনা ক্লাস 2, আমাদের বিদ্যালয় রচনা ১ম শ্রেণি, আমাদের বিদ্যালয় সম্পর্কে ১০টি বাক্য, আমাদের বিদ্যালয় অনুচ্ছেদ ৩য় শ্রেণি, আমাদের বিদ্যালয় আমাদের গর্ব, বিদ্যালয়ে আমরা কি কি করি

Leave a Reply

Translate »