Nusrat Jahan: ‘জ্বরের থেকেও বেশি ভাইরাল আমি, শুধু বাথরুমে প্রাইভেসি পাই, সোজাসাপটা কথা বলেই কেস খাই’,বিস্ফোরক নুসরত

টলিউডের(Tollywood) সবচেয়ে বিতর্কিত নায়িকা নুসরত জাহান(Nusrat Jahan)। বিভিন্ন কারনে বারংবার ট্রোলের(troll) মুখোমুখি হতে হয়েছে তাঁকে। সোশ্যাল মিডিয়ায় নুসরতের বেশিরভাগ কাজকর্মের জন্যই তিনি ট্রোল হন। এবার তাঁর নিজের টক শোতে নিজেই অতিথি হিসাবে হাজির হয়েছিলেন তিনি আর সেখানেই তাঁর ফ্যানেদের প্রশ্নের সাফ জবাব দিলেন বোল্ড নুসরত। তিনি বলেন, জ্বরের থেকেও বেশি ভাইরাল আমি।

কথায় কথায় তাঁকে বোল্ড তকমা দেয় নেটিজেনরা। তাঁর এক ফ্যান নুসরতকে প্রশ্ন ছুঁড়ে দেন, এবছরে তাঁর সবচেয়ে বোল্ড স্টেপ কী? নুসরতের সাফ জবাব, তাঁর সব স্টেপই বোল্ড তকমা দেওয়া হয়। কিন্তু তিনি কোনও বোল্ড স্টেপ নেন না। তাঁর সিদ্ধান্তগুলো সবই স্বাভাবিক। মা হওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া বা কে তার বাচ্চার বাবা সেটা সকলকে জানানো এগুলো কিছুই বোল্ড সিদ্ধান্ত নয়। তাঁর কাছে একমাত্র বোল্ড স্টেপ ছিল মা হওয়া। নুসরত বলেন, মা হতে গেলে অনেক রকমের হরমোনাল চেঞ্জ আসে। সেই হরমোনাল চেঞ্জ প্রভাব ফেলে শারীরিক ও মানসিক স্বাস্থ্যেও। বাড়িতে একটা গাছ মরে গেলেও কান্না পেত, রাত্রি তিনটের সময় কলা খেতে ইচ্ছা করত, যা কোনওদিনই খেতে পছন্দ করতেন না অভিনেতা।

 

তাঁর নাক নিয়ে তাঁকে বারবার ট্রোলের শিকার হতে হয়েছে। অনেকেই বলেছিলেন তিনি তাঁর নাকের সার্জারি করেছেন। নুসরত জানান, তিনি কোনও সার্জারি করাননি। হরমোনাল কারণে তাঁর নাক বেঁকে গিয়েছিল। ত্বকের রঙ বদলে গিয়েছিল। অন্তসত্ত্বা থাকাকালীন সময়ে তিনি এই বিষয়ে কোনও কথা বলেননি কারণ তাঁর মানসিক শান্তি বজায় রাখতে চেয়েছিলেন নায়িকা। তিনি বলেন,’আমি চেয়েছিলাম, আমার মা হওয়ার সিদ্ধান্ত আমার পরিবারের পাসাপাশি সবাই আমাকের সাপোর্ট করবে।

কিন্তু ফেমিনিস্ট ছাড়া কেউ আমাকে সাহায্য করেনি। আমার সিঙ্গল মাদারহুড নিয়ে সোচ্চার হয়েছিলেন তাঁরা. কিন্তু আমি সবাইকে জানাতে চাই আমি সিঙ্গল মাদার নই। আমার সন্তানের আর পাঁচটা বাচ্চার মতোই বাবা-মা আছে।’ নুসরতের প্রাইভেসি নিয়ে প্রশ্ন করেন এক ফ্যান। তার উত্তরে নায়িকা বলেন, ‘বাথরুম ছাড়া আর কোথাও প্রাইভেসি নেই।’

Leave a Reply

Translate »