HomeBengali Literatureঅনলাইন পত্রিকা নিবন্ধন করার নিয়ম | How to register Online News Portal

অনলাইন পত্রিকা নিবন্ধন করার নিয়ম | How to register Online News Portal

অনলাইন পোর্টাল: রেজিস্ট্রেশন পেতে লাগবে ৪ যোগ্যতা,

How to register Online News Portal in Bangladesh ,অনলাইন পত্রিকা নিবন্ধন করার নিয়ম

চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের এই যুগে, ফোর জি, ফাইব জি আর ব্রডব্যন্ডের ছড়া-ছড়িতে আলোর গতিতে অবাধে  যখন তথ্য প্রবাধিত হচ্ছে, মানুষ তখন আর একদিনের বাসি খবর পরের দিন জানার জন্য অপেক্ষা করে না। সব খবরই এখন চাই ইনস্টান্ট। আর এর ই ধারাবাহিকতায় অনলাইন নিউজ পোর্টাল এখন সারা বিশ্বব্যাপিই জনপ্রিয়তার শীর্ষে। প্রচলিত প্রায় সকল পিন্ট মিডিয়াগুলো সময়ের স্রোতে টিকে থাকার জন্য ছাফা পত্রিকার পাশাপাশি বের করছে অনলাইন সংস্করণ।

বর্তমানে বাংলাভাষায় দশ হাজারেও বেশি অনলাইন নিউজ পোর্টাল রয়েছে বলে ধারণা করা হয়। এখন অনলাইন নিউজপোর্টাল চালু করতে গেলে প্রয়োজন হয় লাইসেন্স বা নিবন্ধনের।

আজকের এই ভিডিওতে আমি আপনাদের সাথে আলোচনা করব কি ভাবে আপনি একটি অনলাইন নিউজপোর্টাল শুরু করতে পারেন, কি ভাবে এর লাইসেন্স পেতে পারেন, এই সংক্রান্ত বিধি-বিধান এবং এর বিস্তারিত।

Read More: মা হলেন অভিনেত্রী নুসরাত, বাবা হয়নি কেউ | নুসরাতের সন্তানের নাম যশরত!

অনলাইন নিউজ পোর্টাল তৈরিঃ

অনলাইন সংবাদ পত্রের জন্য প্রথমে আপনাকে একটা নাম ঠিক করতে হবে এবং দেখতে হবে ঐ নামে ডোমেইন ফ্রি আছে কি না।

এর পর আপনাকে ডোমেইন এবং হোষ্টিং কিনতে হবে এবং একটা ওয়েব সাইট তৈরি করতে হবে। এ কাজের জন্য আপনি একজন ওয়েব ডেভলপারের সাথে যোগাযোগ করতে পারেন। আপনি চাইলে আমাদের সাথেও যোগাযোগ করতে পারেন।

আপনার কম্পিউটার, অনলাইন, সাইবার সিকিউরিটি এবং সাংবাদিকতা বিষয়ে মোটামুটি জ্ঞান থাকতে হবে।

অনলাইন নিউজ পোর্টাল থেকে আয়ঃ

একটা অনলাইন নিউজ পোর্টাল থেকে বিভিন্ন ভাবে আয় করা যায়। এর মধ্যে উল্লেখ যোগ্য হল-

  • গুগল এডসেন্স
  • লোকাল স্পন্সার এডস্‌
  • অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং
  • ইনস্টান্ট আর্টিকেল
  • ইয়াহু এডস্‌, টাবোলা ইত্যাদি ছোট ছোট এড কোম্পানি থেকে।

একটা অনলাইন নিউজ পোর্টালের ইনকাম মূলত নির্ভর করে ডেইলি রেগুলার ভিজিটর, ডেইলি ইউনিক ভিজিটর, মান্থলি রেগুলার ভিজিটর, টোটাল পেজ ভিউ, অ্যালেক্সা র‍্যাঙ্কিং ইত্যাদির উপর।

বাংলদেশের বিখ্যাত কিছু অনলাইন নিউজ পোর্টাল হল- bdnews24.com, banglanews24.com, jago news24.com, bd24live.com, prothomalo.com, banglatribune.com ইত্যাদি।

অনলাইন নিউজ পেপারের নিবন্ধনঃ

অনালাইন নিউজপেপার হোক, আইপি টিভি হোক বা অনলাইন রেডীও, এট দ্য ইন্ড অফ দ্যা ডে ইটস্‌ এ বিজনেস। আর এই জন্যই আপনাকে ব্যবসা করার জন্য যেই রকম ডকুমেন্ট লাগে তা জোগাড় করতে হবে।

১। প্রথমে আপনার একটা অফিস এড্রেস দরকার হবে।

২। এর পর আপনাকে আপনার অনলাইন পত্রিকার নামে একটা ট্রেড লাইসেন্স করতে হবে। আপনি/আপনার ব্যবসা যে এলাকায়, সেই এলাকার ইউনিয়ন পরিষধ বা সিটি করপোরেশন থেকে ট্রেড লাইসেন্স সংগ্রহ করতে হবে।

৩। এর পর আপনার একটা TIN license বা (Tax Identification Number) সংগ্রহ করতে হবে।

৪। প্রতিষ্ঠানের নামে একটা ব্যাংক একাউন্ট খুলতে হবে।

৫। এর পর তথ্য অধিদপরের ওয়েব সাইট (http://pressinform.portal.gov.bd) থেকে অনলাইন নিউজ প্রকাশনা নিবন্ধনের জন্য আবেদন ফর্ম টি সঠিক তথ্য প্রদান করে ফিল-আপ করতে হবে।

৬। এর পর আবেদনকারীর জাতীয় পরিচয় পত্রের অনুলিপি, প্রত্যয়ন পত্র বা হলফনামা এবং যাবতীয় সাপোর্টিং ডকুমেন্টেস্‌ এর ফটোকপি বা স্ক্যান কপি  জমা দিতে হবে।

অনলাইন রেডিও/টিভি বা আইপিটিভির জন্যও প্রায় একই ধরনের বিধান প্রযোজ্য। যাবতীয় ফর্ম (http://pressinform.portal.gov.bd) এই ওয়েব সাইটে পাওয়া যাবে।

অনলাইন নিউজ পোর্টাল, অনলাইন টীভি/রেডিও ইত্যাদি নিবন্ধন এবং দেখভালের জন্য জাতীয় সম্প্রচার কমিশন গঠন করা হবে। জাতীয় সম্প্রচার কমিশন থেকে নির্ধারিত ফি দিয়ে নিবন্ধনের আবেদন করতে হবে।

যেহেতু জাতীয় সম্প্রচার কমিশন এখনও গঠিত হয় নাই তাই এই কমিশন চালু হওয়ার পূর্ব পর্যন্ত তথ্য মন্ত্রনালয়ের অধিনে তথ্য অধিদপ্তরে আবেদনটি জমা দিতে হবে।

 

আবেদন পত্র এবং সংযুক্ত কাগজপত্র যাচাই বাচাই ও তদন্ত করে সব কিছু ঠিক থাকলে তথ্য অধিদপ্তর অনলাইন সংবদ পত্রটির লাইসেন্স প্রদান করবে।

এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় পরামর্শের জন্য তথ্য অধিদপ্তরের প্রটোকল শাখায় (ফোন নম্বর : ৯৫১৪০৬৫ অথবা ০১৭১৫২৫৫৭৬৫) যোগাযোগ করা যেতে পারে।

সফল ভাবে নিবন্ধন সম্পন্ন হওয়ার পর প্রেস অ্যাক্রিডিটেশন কার্ডের জন্য আবেদন করতে হবে। (http://pressinform.portal.gov.bd) এই ওয়েব সাইটে থেকে আবেদন ফর্ম ডাউনলোড করে সঠিক তথ্য দিয়ে ফর্ম ফিল আপ করে জমা দিতে হবে।

কোনো অনলাইন পত্রিকাকে নিবন্ধন দেওয়ার আগে পুলিশের বিশেষ বিভাগের কর্মকর্তরা ওই অনলাইন পত্রিকার অফিস পরিদর্শন করে মন্ত্রণালয়ে প্রতিবেদন দেবে। সবকিছু যাচাই-বাচাই করে সন্তোষজক মনে হলে অ্যাক্রিডিটেশন কার্ড পাওয়া যাবে।

তো বন্ধুরা এই ছিল অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিয়ে আজকের আলোচনা, দেখা হবে পরবর্তী ভিডীওতে, সেই পর্যন্ত ভালো থাকুন, সুস্থ থাকুন, আল্লাহ হাফেজ।

দ্রুত, সঠিক ও নির্ভুল সংবাদ প্রচার করায় অনলাইন নিউজ পত্রিকাগুলো (পোর্টাল) দেশে আজ বেশ জনপ্রিয়। অধিকাংশ অনলাইন গণমাধ্যম বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করলেও বেশ কিছু অনলাইন তা করছে না। এতে অনেক সময় সরকারসহ বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানের সুনাম ক্ষুন্ন হচ্ছে। তাই অনলাইন গণমাধ্যমগুলোকে এক ছাতার নিচে আনতে নিবন্ধন দিতে যাচ্ছে সরকার।

নিবন্ধন পেতে অন্তত চারটি যোগ্যতা (বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন, অফিসসহ চাহিদা মাফিক জনবল, নিয়মিত বেতনভাতা পরিশোধ, আবেদনকারীর কর শনাক্ত নম্বর টিআইএন) থাকতে হবে একটি প্রতিষ্ঠানকে। তার ভিত্তিতেই নিবন্ধন দেওয়া হবে। এ কার্যক্রম খুব সহসাই শুরু হবে বলে জানিয়েছে তথ্য মন্ত্রনালয়ের সংশ্লিষ্ট সূত্র।

সূত্র জানায়, তথ্যপ্রযুক্তির প্রসারে দেশের মানুষ ক্রমেই দেশে ইন্টারনেট নির্ভর হয়ে পড়ছে। ফুটপাতের দোকানদার থেকে কোটিপতি সবার হাতেই ইন্টারনেট। ক্ষমতাসীন দলের নির্বাচানী ইশতেহার ছিল ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণ করা। আর বর্তমান সরকারের নির্বাচনী ইশতেহার ডিজিটাল বাংলাদেশের পথে এগিয়ে চলছে। পাশাপাশি অনলাইন গণমাধ্যমগুলো বিশ্বের যেকোনো প্রান্তে বসে যে কোনো খবর পাওয়া যাচ্ছে নিমেষেই।

অনলাইন গণমাধ্যমে বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশনের  জন্য  মনিটরিং জন্য অনলাইন পোর্টালের নিবন্ধন দেওয়া হবে। বর্তমানের একটি দৈনিক পত্রিকা বের করতে নামের ক্লিয়ারেন্সসহ অনুমতি নিতে হয় ঠিক একই প্রক্রিয়া অনুসরণ করে অনলাইন পত্রিকার নিবন্ধন দেওয়া হবে।

অনলাইন নিবন্ধনের জন্য প্রায় আট হাজার আবেদন করা হয়েছে। এর মধ্যে প্রাথমিকভাবে তিন হাজার ৫৯৭টি আবেদন স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের কাছে তদন্তের জন্য পাঠানো হয়। স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় থেকে সেগুলো সরকারের বিভিন্ন সংস্থার কাছে ইনভেস্টিগেশন করতে পাঠানো হয়। তারা ইতোমেধ্যে কয়েকশ’ অনলাইনের তদন্তকাজ শেষ করে পাঠিয়েছে। তথ্য মন্ত্রণালয় এগুলোর মধ্য থেকে যাচাই-বাছাই করে ধাপে ধাপে নিবন্ধন দেওয়া শুরু করবে।

দেখা গেছে ঘরে বসে কয়েকজন মিলে একটা অনলাইন নিউজ পোর্টাল চালু করে দেয়। তবে এখন আর এসব নাম সর্বস্ব অনলাইন পত্রিকা করতে দেওয়া হবে না। পাশাপাশি যারা বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করে না, এসব ভুয়া পোর্টালের বিরুদ্ধে অ্যাকশনে যাবে সরকার।

নিবন্ধনের পর থেকে এভাবে আর অনলাইন পত্রিকা চালানো যাবে না। অনলাইন সংবাদমাধ্যমের জন্য গাইডলাইন তৈরি করা হয়েছে। সে আলোকেই তাদের চলতে হবে। নিবন্ধন পাওয়ার পর বেশ কিছু শর্ত মেনে চলতে হবে।

তথ্য মন্ত্রণালয়ের এক কর্মকর্তা নাম প্রকাশ না করে বলেন, ‘একটি দৈনিক পত্রিকাকে যেভাবে অনুমোদন নিতে হয়, সেই আদলেই অনলাইন পোর্টাল পত্রিকাকে নিবন্ধন দেওয়া হবে। ইতোমধ্যে সরকারের কয়েকটি সংস্থার তদন্ত শেষে বেশ কিছু অনলাইন পোর্টালের সার্বিক তথ্য এসেছে। এগুলোর মধ্যে যাচাই-বাছাই করে নিবন্ধন দেওয়া শুরু হবে। অধিকাংশ অনলাইন মনিটরিং করা হচ্ছে। যেসব অনলআইনগুলো বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করছে এবং অফিস, পর্যাপ্ত সংবাদকর্মী আছে তাদের নিবন্ধন প্রথমে দেওয়া হবে।’

তিনি বলেন, ‘‘আবেদনের মধ্যে এমন অনেক পোর্টাল আছে, যেসব পোর্টাল যারা চালাচ্ছেন তাদের সাংবাদিকতাসহ অন্য কোনো পেশায় কাজ করার যোগ্যতা নেই। তারা অনলাইন খুলে বসে কার্ড বানিয়ে সাংবাদিক হিসেবে পরিচয় দিচ্ছে নিজেদের। তাদের মতো কয়েক জনের জন্য বৃহত্তর সাংবাদিক পরিবারের বদনাম হয়।

‘এটি যাতে না হয় সেজন্য অনলাইন নিবন্ধন দেওয়া হচ্ছে। নিবন্ধন দেওয়ার পর যেসব গুজব কিংবা মিথ্যা সংবাদ পরিবেশন করে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করাসহ এগুলোর ডোমেইন বন্ধ করে দেওয়া হবে।”

তথ্য অধিদপ্তরের এক কর্মকর্তা বলেন, ‘‘বর্তমান সরকার গণমাধ্যমবান্ধব সরকার। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে গণমাধ্যমের ব্যাপক বিকাশ ঘটেছে। ১১ বছর আগে পত্রিকার সংখ্যা ছিল ৭৫০টি, এখন এক হাজার ৩০০ এর বেশি। টেলিভিশন চ্যানেলের সংখ্যা ছিল ১০টি। এখন ৩৪টি সম্প্রচারে আছে এবং ৪৫টির লাইসেন্স দেওয়া হয়েছে। আমাদের দেশে ১১ বছর আগে হাতে গোনা কয়েকটি অনলাইন ছিল। এখন কয়েক হাজার অনলাইন পত্রিকা রয়েছে।

‘অনলাইন পত্রিকাকে স্বীকৃতিসহ মনিটরিং করতে নিবন্ধন দেওয়া হচ্ছে। কেননা অনলাইন পরিচালনার জন্য নিবন্ধন নিতে হচ্ছে না। তাই যে কেউ একটি ডোমেইন কিনে অনলাইন পত্রিকা খুলছে।”

তিনি বলেন, ‘দেশে নয় কোটির বেশি মানুষ সোশ্যাল মিডিয়া ব্যবহার করে। সোশ্যাল মিডিয়ার যেমন ভালো দিক আছে, তেমনি খারাপ দিকও আছে। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে গুজবও ছড়ানো হচ্ছে। এটিকে শৃঙ্খলায় আনার জন্য নিবন্ধন দেওয়া হবে।’

তথ্যমন্ত্রী ড. হাছান মাহমুদ বলেন, ‘সহসাই অনলাইন সংবাদ পোর্টালের নিবন্ধন (রেজিষ্ট্রেশন) হবে। আর যেসমস্ত অনলাইন বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করে না, হীন উদ্দেশ্যে জনমনে বিভ্রান্তি ছড়ায় ও নানা অনৈতিক কাজে লিপ্ত, তাদের বিরুদ্ধে তদন্তসাপেক্ষে ব্যবস্থা নেওয়া হবে। আর যেসমস্ত অনলাইন বস্তুনিষ্ঠ সংবাদ পরিবেশন করে আসছে, গণমাধ্যম জগতে সত্যিকার ভূমিকা রাখছে, তারা রেজিস্ট্রেশন পাবে। সহসাই এসব অনলাইনগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে নিবন্ধন দেওয়া শুরু করব।’

ডেইলি নিউজ টাইমস বিডি ডটকম (Dailynewstimesbd.com)এর ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব ও ফেসবুক পেইজটি ফলো করুন করুন।

অনলাইন পত্রিকা নিবন্ধন তালিকা, কিভাবে অনলাইন পত্রিকা খুলবো  অনলাইন নিউজ পোর্টাল নিবন্ধন তালিকা,  অনলাইন নিবন্ধন ফরম, নিবন্ধিত অনলাইন পত্রিকার তালিকা,  অনলাইন পত্রিকার নিবন্ধন ফরম , জনপ্রিয় অনলাইন পত্রিকা নতুন অনলাইন পত্রিকা

Leave a Reply

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here

Icon box title

Whatever your plan is, our theme makes it simple to combine, rearrange and customize elements as you desire.

pp

Latest Post

Recent Comments