আগুনে সব পুড়লেও অক্ষত রয়েছে কোরআন শরিফ

 

 

সুগন্ধা নদীতে বরগুনাগামী এমভি অভিযান-১০ লঞ্চে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডে লাশের সারি দীর্ঘ হচ্ছে। শনিবার বরগুনায় ৩০টি লাশ জানাজা শেষে গণকবরে দাফন করা হয়েছে। বাকি লাশগুলো স্বজনরা এসে শনাক্তের পর জেলা প্রশাসক স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করেছেন। এত ক্ষয়ক্ষতির মাঝেও অক্ষত রয়ে গেছে ইসলাম ধর্মের পবিত্র ধর্মগ্রন্থ আল কোরআন!

 

 

অগ্নিকাণ্ডের খবর পেয়ে নদীতীরে স্বজনরা ভিড় করে। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে দীর্ঘ হয় ভিড়, সেই সঙ্গে বাড়ে স্বজনদের আহাজারি। তাদের মধ্যে বেশির ভাগই জানে না তাদের প্রিয়জন এখনো বেঁচে আছে, নাকি না-ফেরার দেশে চলে গেছে।

এদিকে ল‌ঞ্চে আগুন লাগার ঘটনায় আহত প্রায় ৭০ জনকে শুক্রবার সকালে ব‌রিশাল শের-ই-বাংলা মে‌ডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভ‌র্তি করা হয়েছে।

 

শনিবার ভোরের আলো ফোটার আগে হাসপাতালে স্বজনদের আহাজারি শুরু হয়। দগ্ধ স্বজনের খোঁজে হাসপাতালে ভিড় জমায় তারা।

 

গত বৃহস্পতিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে ঝালকাঠির সুগন্ধা নদীতে বরগুনাগামী এমভি অভিযান-১০ নামের লঞ্চে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় লাশের সারি দীর্ঘ হচ্ছে।

শেষ খবর পাওয়া পর্যন্ত ৪১ জনের মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে বলে ফায়ার সার্ভিস সূত্রে জানা গেছে। আজ শনিবার বরগুনায় ৩০টি লাশ জানাজা শেষে গণকবরে দাফন করা হয়েছে। বাকি লাশগুলো স্বজনরা এসে শনাক্ত করার পর জেলা প্রশাসক স্বজনদের কাছে হস্তান্তর করেছেন।

তবে এত ক্ষয়ক্ষতির মাঝেও অক্ষত রয়ে গেছে পবিত্র কোরআন! এমন অলৌকিক ঘটনা দেখে অনেকে বিস্ময় প্রকাশ করেছে।

Leave a Reply

Translate »