আরব আমিরাতে তৈরি হচ্ছে প্রথম হিন্দু মন্দির

মধ্যপ্রাচ্যের অন্যান্য দেশের চাইতে সংযুক্ত আরব আমিরাত একটু আলাদা। বিশেষ করে বাণিজ্য নিয়ে দেশটির উদার দৃষ্টিভঙ্গি দেশকে আলাদা করে পরিচিত দিয়েছে।

আমিরাত ক্রমেই হয়ে উঠছে বিশ্ববাণিজ্যের প্রাণকেন্দ্র। সেই সঙ্গে বিনোদনের অন্যতম তীর্থস্থান। আবার পর্যটন কেন্দ্র হিসাবে দেশটির চাহিদা বাড়ছে প্রতিদিনই।

আমিরাতের সঙ্গে ভারতের রয়েছে বিশাল বাণিজ্য সম্পর্ক। তাই ভারতের সঙ্গে সব সময়েই উষ্ণ বন্ধুত্বের সম্পর্ক বজায় রেখে চলে আমিরাত। করোনাকালে সেই সম্পর্কে আরও গভীর হয়েছে।

বন্ধুত্বের এই সম্পর্ককে অন্য উচ্চতায় নিতে আবুধাবিতে তৈরি হচ্ছে দেশটির প্রথম হিন্দু মন্দির। আনুষ্ঠানিকভাবে উদ্বোধন এখনও না হলেও, আংশিকভাবে চালু হয়ে গেছে মন্দির।

আসছে অক্টোবরে জমকালো উদ্বোধন হবার কথা। ভারতের পররাষ্ট্রমন্ত্রী এরইমধ্যে দেখে এসেছেন আবুধাবির মন্দিরটি। এটি তৈরিতে ব্যবহার করা হচ্ছে না কোনও লোহা।

বেলেপাথর দিয়ে নির্মিত হচ্ছে আবুধাবির এই মন্দিরটি। ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এই মন্দিরটির নির্মাণ কাজের উদ্বোধন করেছিলেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।

সুবিশাল এই মন্দিরে রয়েছে ১৬ দেবতার মূর্তি। ৯ দিনের বিশেষ পূজাপাঠের মাধ্যমে প্রাণপ্রতিষ্ঠা করা হয়েছে মূর্তিগুলোর। আগস্টের শেষদিকে প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে শিখদের ধর্মগ্রন্থ- গ্রন্থসাহেব।

আরও পড়ুন: ৩০ শতাংশ হিন্দু জন্য আবুধাবিতে প্রথম হিন্দু মন্দির, যা তৈরি হচ্ছে ইস্পাত ছাড়াই।

আমিরাতে বসবাস করেন প্রায় ৩০ লাখ ভারতীয়। সেখানে মন্দির নির্মাণ করায় তারা বেশ খুশি। জানা গেছে, মন্দিরটি তৈরিতে লেগেছে প্রায় ২২৫০ টন পাথর।

আবুধাবির জেবেল আলি গ্রামে তৈরি হয়েছে এই মন্দির। তবে শুধু এই হিন্দু মন্দির নয়, এর আগেও জেবেল গ্রামে তৈরি হয়েছে বহু গির্জা।

বর্তমানে প্রায় ১৪ জন পুরোহিত যুক্ত আছেন ওই মন্দিরের সঙ্গে। সকাল ৭টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত চলছে মন্দিরের কার্যক্রম।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!

Leave a Reply

Translate »