এক পায়ে স্কুলে যাওয়া সেই সীমার পাশে সোনু সুদ

এক পায়ে ভর দিয়ে স্কুলে যাওয়া বিহারের জামুইয়ের সেই সীমার পাশে দাঁড়ানোর আশ্বাস দিলেন ভারতের দক্ষিণী সিনেমার অভিনেতা সোনু সুদ।

সম্প্রতি একটি ভিডিও অন্তর্জালে ভাইরাল হয়েছে। তাতে দেখা যায়, স্কুল ড্রেস পরে গ্রামের মেঠো রাস্তা ধরে পিঠে ব্যাগ নিয়ে এক পায়ে ভর করে এগিয়ে যাচ্ছে বছর দশের একটি মেয়ে। ছোট্ট মেয়েটির অদম্য লড়াই দেখে মুগ্ধ গোটা দেশ। দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীবাল সীমার সীমাহীন লড়াই নিয়ে টুইট করেছিলেন।

 

ভিডিওটি অভিনেতা সোনু সুদের নজর এড়ায়নি। সীমার এই অদম্য লড়াই মন ছুঁয়েছে তার। এক টুইটে তিনি বলেন, ‘এরপর আর এক পায়ে নয়, দু’পায়ে হেঁটেই স্কুল যাবে সীমা। টিকিট পাঠাচ্ছি। দু’পায়ে হাঁটার সময় এসে গিয়েছে।’

বিহার রাজ্যের জামুইয়ের ফতেহপুর গ্রামের বাসিন্দা সীমা। বছর দু’য়েক আগে এক সড়ক দুর্ঘটনার পর পা কেটে বাদ দেওয়া হয়। এতে তার পড়াশোনা বন্ধ হতে বসেছিল। কিন্তু সীমার অদম্য জেদের কাছে হার মানে শারীরিক প্রতিবন্ধকতা। ফের পিঠে ব্যাগ তুলে নেয় সে। এক পায়ে ভর করে এক কিলোমিটার দূরের স্কুলে পড়তে যায় সীমা। তার স্বপ্ন শিক্ষক হওয়ার। তার সেই স্বপ্নের উড়ানে এখন সওয়ারি অনেকে।

এরই মধ্যে স্থানীয় জেলা প্রশাসন তাকে সাহায্যের জন্য এগিয়ে এসেছে। গতকাল বিকেলে তার বাড়িতে গিয়েছিলেন জেলাশাসক অবনীশ কুমার। সীমার চলার পথকে সুগম করতে তার পরিবারের হাতে তুলে দেওয়া হয় একটি ট্রাইসাইকেল। তাকে কৃত্রিম পা দেওয়ার আশ্বাসও দিয়েছেন অবনীশ কুমার।

পড়ুন: এক পায়ে লাফিয়ে ১ কিলোমিটার পাড়ি দিয়ে স্কুলে যায় সীমা (ভিডিও)

Leave a Reply

Translate »