এবার আফগান ক্রিকেট বোর্ডের সদর দফতরে পা রাখল তালেবান

দীর্ঘ ২০ বছর পর আফগানিস্তান দখলে নিয়েছে তালেবান। দেশ দখলের পর এবার সরকার গঠনের দিকে মনোযোগ দিচ্ছে তালেবান। তবে নতুন আফগানিস্তানে গণতন্ত্রের কোনো জায়গা থাকবে না। তালেবান শাসনে মূলত শরিয়া আইনের ওপরেই শাসন ব্যবস্থা গড়ে উঠবে বলে জানিয়েছেন তালেবান নেতৃবৃন্দ।

এদিকে, বৃহস্পতিবার কাবুলে আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (এসিবি) সদর দফতরে পা রাখে তালেবান। এ সময় দেশটির সাবেক ক্রিকেটার আব্দুল্লা মাজারিও ছিলেন।

ছবিতে দেখা যাচ্ছে, আফগানিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের সদর দফতরের কনফারেন্স হল তালেবানের দখলে। তাদের সাথে রয়েছে অত্যাধুনিক আগ্নেয়াস্ত্র। দেশের অন্যত্রও বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে ঠিক এই ছবিই দেখা যাচ্ছে। বাদ গেল না আফগান ক্রিকেটও। এর আগে দেশের ক্রিকেটপ্রেমীদের আশ্বস্ত করে এসিবির কর্মকর্তা হামিদ শিনওয়ারি জানিয়েছিলেন, তালেবান ক্রিকেট ভালবাসে। ফলে সে দেশের ক্রিকেট নিয়ে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই।

তিনি বলেন, ‘তালেবান শুরু থেকে আমাদের পাশে রয়েছে। আমাদের কাজকর্মে ওরা হস্তক্ষেপ করবে না। আমি আশাবাদী, প্রয়োজনীয় সাহায্য আমরা পাব। আমাদের দেশের ক্রিকেট আবার আগের মতো এগিয়ে যাবে। আমাদের একজন সক্রিয় চেয়ারম্যান আছেন। আমিও এখনো নিজের পদে বহাল আছি।’

Read More: অবশেষে মুখ খুললেন যশ অন্তঃসত্ত্বা নুসরাতের বিষয়ে

এর আগে দেশের সাম্প্রতিক পরিস্থিতি নিয়ে একাধিকবার সোশ্যাল মিডিয়ায় উদ্বেগ প্রকাশ করেন আফগানিস্তানের তারকা ক্রিকেটার রশিদ খান। বর্তমানে ইংল্য়ান্ডে দ্যা হান্ড্রেড প্রতিযোগিতায় ক্রিকেট খেলছেন রশিদ খান ও মোহাম্মদ নবিরা। আফগানিস্তানে পরিবারের নিরাপত্তা নিয়েও চিন্তায় ছিলেন রাশিদ খান।

এবার দেশের ক্রিকেট বোর্ডে তালেবানরা পা রাখায় আফগানিস্তানের টি-২০ বিশ্বকাপে খেলা নিয়ে তৈরি হয়েছে সংশয়। গোটা বিষয়টির উপর নজর রাখছে আইসিসিও। স্বস্তির খবর বলতে এখনও আফগানিস্তানের ক্রিকেটের উপর কোনও রকম নিষেধাজ্ঞা জারি করেনি তালেবানরা।

সূত্র: হিন্দুস্তান টাইমস।

ডেইলি নিউজ টাইমস বিডি ডটকম (Dailynewstimesbd.com)এর ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব ও ফেসবুক পেইজটি ফলো করুন করুন।

Leave a Reply

Translate »