গোপালগঞ্জের ২ পৌরসভায় ১৭ মেয়র প্রার্থীর মনোনয়নপত্র দাখিল

গোপালগঞ্জ: উৎসবমুখর পরিবেশে গোপালগঞ্জ সদর ও মুকসুদপুর পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র, কাউন্সিল এবং নারী কাউন্সিলর প্রার্থীরা মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। মনোনয়নপত্র দাখিলের শেষ দিন মঙ্গলবার (১৭ মে) সকাল থেকে বিকেল পর্যন্ত গোপালগঞ্জ সদর পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থীরা রিটার্নিং কর্মকর্তা ও জেলা নির্বাচন কর্মকর্তার কাছে মনোনয়নপত্র জমা দেন প্রার্থীরা। এসময় মোটরসাইকেল বহর নিয়ে প্রার্থীরা ব্যাপক শোডাউন করেন। গোপালগঞ্জ সদর পৌরসভায় মেয়র পদে ১১ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেন। এছাড়া ১৫ ওয়ার্ডে কাউন্সিলর পদে ৬৮ জন ও পাঁচটি ওয়ার্ডে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ২১ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র জমা দেন।

মেয়র প্রার্থীরা হলেন- জেলা শ্রমিক লীগের আহ্বায়ক ও সাবেক মেয়র রেজাউল হক সিকদার রাজু, সদর উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি ও সাবেক মেয়র কাজী লিয়াকত আলী, জেলা যুবলীগের সভাপতি জি এম সাহাবুদ্দিন আজম, জেলা আওয়ামী লীগের শিল্প ও বাণিজ্য সম্পাদক মৃণাল কান্তি রায় চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগের ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ সম্পাদক শেখ রকিব হোসেন, পরিবহন মালিক সমিতির সাবেক সাধারণ সম্পাদক মুশফিকুর রহমান লিটন, জেলা আওয়ামী লীগের প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক বদরুল আলম, ব্যবসায়ী দিলীপ কুমার সাহা দীপু, ব্যবসায়ী এস এম নজরুল ইসলাম নতুন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের মো. দিদারুল ইসলাম ও পৌর আওয়ামী লীগের সদস্য মো. আবুল ফাত্তাহ।

গোপালগঞ্জ পৌরসভার মোট ভোটার ৫৫ হাজার ১৮৭ জন। এর মধ্যে পুরুষ ভোটার ২৭ হাজার ৮১৬ জন ও নারী ভোটর ২৭ হাজার ৮১৬ জন।

গোপালগঞ্জে সড়ক দুর্ঘটনা : নিহত বেড়ে ৮

এদিকে মুকসুদপুর পৌরসভায় মেয়র পদে ছয়জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র দাখিল করেছেন। এছাড়া নয় ওয়ার্ডে কউন্সিলর পদে ৩৪ জন ও তিনটি ওয়ার্ডে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ১০ জন প্রার্থী তাদের মনোনয়নপত্র জমা দেন।

মেয়র পদে প্রার্থীরা হলেন- আওয়ামী লীগ মনোনীত অ্যাডভোকেট আতিকুর রহমান মিয়া, স্বতন্ত্র আশরাফুল আলম শিমুল, আহাজ্জাদ মহসিন খিপু মিয়া, সাজ্জাদ করিম মন্টু, আহাদুল ইসলাম ও সাইফুদ্দীন সরদার বিদ্যুৎ। মুকসুদপুর পৌরসভার মোট ভোটার ১৭ হাজার ৩৪৮ জন।

ধর্মান্তরিত করে বিয়ের পর বিষক্রিয়া,ছাত্রীর মৃত্যু নিয়ে রহস্যজাল!

এর মধ্যে পুরুষ ভোটার আট হাজার ৬৩৫ জন ও নারী ভোটর আট হাজার ৭১৩ জন। আগামী ১৫ জুন গোপালগঞ্জ সদর ও মুকসুদপুর পৌরসভার নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মনোনয়নপত্র বাছাই ১৯ মে, মনোনয়নপত্র প্রত্যাহারের শেষ দিন ২৬ মে এবং প্রতীক বরাদ্দ দেওয়া হবে ২৭ মে।

Source; banglanews24

Leave a Reply

Translate »