পর্নো আসক্তি আমার ব্রেনকে ধ্বংস করে দিয়েছে : বিলি আইলিশ

যুক্তরাষ্ট্রের এ প্রজন্মের সঙ্গীতশিল্পী এবং গীতিকার বিলি আইলিশ বলেছেন, ‘সত্যি কথা বলতে কি, আমি প্রচুর পর্নো ছবি দেখতাম। আমি এখন মনে করি, বাস্তবেই তা আমার ব্রেনকে ধ্বংস করে দিয়েছে। এখন আমি ভয়াবহভাবে বিপর্যস্ত হয়ে যাই- এই ভেবে যে, আমি এত বেশি পর্নো আসক্ত ছিলাম। এসব পর্নো আসক্তি এবং এসব ছবি দেখার কারণে টিনেজ, যুবক বা প্রাপ্ত বয়স্কদের মধ্যেও অপরাধ প্রবণতা বৃদ্ধি পাচ্ছে।

‘সিরিয়াস এক্সএম’কে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ২০ বছর বয়সী এই মার্কিন তারকা এমনটাই জানিয়েছেন। তিনি আরও বলেন,‘মাত্র ১১ বছর বয়স থেকেই পর্নো ছবির প্রতি আসক্ত হয়ে পড়ি আমি। তারপর একটানা এসব ছবি দেখেছি। বলেছেন, এ জন্য এখন নিজের ওপর ভীষণ রাগ হয়। একজন মেয়ে হিসেবে আমি মনে করি পর্নো ছবি হলো একটি অসম্মানের বিষয়।’

বিলি আইলিশ বলেন, ‘অতিরিক্ত পর্ন দেখবার ফলে দুঃস্বপ্ন দেখেছেন তিনি। আমি ভেবেছিলাম এগুলোই ঠিক, এগুলোর প্রতি আমার আকর্ষন থাকাটা জরুরি। কিন্তু পর্নোগ্রাফিতে যা দেখানো হয় তা অত্যন্ত হিংস্র এবং অপমানজনক।’ বিশেষ করে নারীর শরীর এবং যৌনতাকে সেখানে যেভাবে দেখানো হয় তার কঠোর সমালোচনা করেন ‘ব্যাড গাই’ খ্যাত গায়িকা।

 

উল্লেখ্য, এই মুহূর্তে গোটা বিশ্বের অন্যতম জনপ্রিয় পপ তারকা বিলি আইলিশ। নিজের দ্বিতীয় স্টুডিও অ্যালবাম ‘হ্যাপিয়ার দ্যান এভার বিলি’-তে গায়িকা গানও তৈরি করেছেন নিজের পর্ন আসক্তি নিয়ে। ভাঙা সম্পর্কের পর বাড়িতে একা থেকে কেমনভাবে পর্ন দেখে দেখে ধ্বংসের পথে এগিয়েছেন তিনি, তা উঠে এসেছে সেই গানে। ২০২১ সালের অন্যতম জনপ্রিয় অ্যালবাম এটি। সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস ও সিএনএন

Leave a Reply

Translate »