পাকিস্তানে মসজিদে শির‌শ্ছেদের প্রশিক্ষণ!

ইসলামের নবী হযরত মুহাম্মদ (সা.)-কে অবমাননা করলে শির‌শ্ছেদ করতে হবে। তাই কীভাবে শির‌শ্ছেদ করতে হয় তার প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে। পাকিস্তানের লাল মসজিদে তরুণীদের শির‌শ্ছেদ করার প্রশিক্ষণ দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। ইতোমধ্যে ওই প্রশিক্ষণ দেওয়ার একটি ভিডিও ভাইরাল হয়েছে। যা নিয়ে তোলপাড় চলছে।

সামাজিক মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়া ভিডিওতে দেখা গেছে, মসজিদের মধ্যে বোরকা পরা এক শিক্ষক তরুণীদের তলোয়ারের প্রশিক্ষণ দিচ্ছেন, কীভাবে শির‌শ্ছেদ করতে হয়। প্রশিক্ষণ পর্বে তলোয়ার হাতে তরুণীদের স্লোগান দিতেও দেখা গেছে। প্রশিক্ষণে শেখানো হচ্ছে, যারা নবীকে ‘অপমান’ করবে তাদের একমাত্র শাস্তি হচ্ছে শির‌শ্ছেদ।

কবি কামিনী রায় এবং তাঁর সংক্ষিপ্ত জীবনী

এই বিষয় নিয়ে ভারতীয় সংবাদ মাধ্যম নিউজ১৮-এর সঙ্গে কথা বলেছেন বিশ্লেষক আমিনা বেগম আনসারি। তিনি বলেন, আমাদের সমাজ থেকে এ ধরনের প্রশিক্ষণ বন্ধ করতে হবে।

 

আমিনার আশঙ্কা, এ সব দেখে পরের প্রজন্ম জঘন্য অপরাধ ঘটাতে পারে। তাই অবিলম্বে এই ধরনের প্রশিক্ষণ বন্ধ করা হোক। তিনি আরও বলেন, এটা ইসলামের রাজনীতিকরণ করা হচ্ছে। এটা শুধু ভারতের জন্যই নয়, ভারতীয় মুসলমানদের জন্যও হুমকি ও বিপজ্জনক।

 

তবে এই ভিডিও নিয়ে এখন পর্যন্ত সত্যতা যাচাই করা সম্ভব হয়নি বলে প্রতিবেদনে বলা হয়েছে। সূত্র: ফার্স্ট পোস্ট

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!

Leave a Reply

Translate »