প্রেমিককে দিয়ে মেয়েকে ১ বছর ধরে ধর্ষণ করালেন মা!

প্রেমিককে দিয়ে প্রায় এক বছর ধরে নিজের মেয়েকে ধর্ষণ করিয়েছেন মা। ধর্ষণের জেরে গর্ভবতী হয়ে পড়েছে ১৪ বছরের সেই কিশোরী।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম আনন্দবাজারের খবরে বলা হয়, বর্তমানে সেই কিশোরী আট মাসের গর্ভবতী। মা ও মায়ের প্রেমিকের বিরুদ্ধে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছে সে।

পুলিশ জানিয়েছে, অভিযুক্তদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে।

খবরে বলা হয়, ভারতের দক্ষিণ বেঙ্গালুরুর শহরতলিতে মায়ের সঙ্গেই থাকত ওই নাবালিকা। তার মায়ের সঙ্গে প্রায়শই তাদের বাড়ি আসত মায়ের প্রেমিক বিনয়।

২২ বছরের বিনয় পেশায় অটোচালক। ডাকাতির মামলায়ও সে অভিযুক্ত। নাবালিকার মা একটি বাড়িতে কাজ করেন। গত ১০ বছর ধরে স্বামীকে ছেড়ে মেয়েকে নিয়ে থাকেন তিনি। সপ্তম শ্রেণির পর লেখাপড়া ছেড়ে দিতে বাধ্য হয় ওই কিশোরী।

ভুক্তভোগী ওই কিশোরী পুলিশকে জানিয়েছে, বিনয় ও তার মা বাড়িতে এক সঙ্গে মদ্যপান করত। প্রায়শই তার মা তাকে বিনয়ের সঙ্গে রাতে শুতে বাধ্য করত।

এভাবেই মায়ের সহায়তায় দিনের পর দিন তাকে ধর্ষণ করে বিনয়। বিনয়ের সঙ্গে থাকতে আপত্তি জানালে তার মা বলতেন, বিনয়ের সঙ্গে বিয়ে দেওয়া হবে তার।

এভাবেই মেয়েটি অসুস্থ হয়ে পড়ে। মাকে এ কথা জানালেও তিনি গুরুত্ব দেননি বলে অভিযোগ নাবালিকার। হাসপাতালে না নিয়ে গিয়ে মেয়েকে ওষুধ খেতে বলেন মা।

ওই ঘটনার পর বিনয়ও তাদের বাড়ি আসা বন্ধ করে দেয়। এর পর দিদিমাকে গোটা ঘটনা বলে ওই নাবালিকা। দিদিমা হাসপাতালে নিয়ে যেতেই গর্ভবস্থার বিষয়টি সামনে আসে। তারপরই পুলিশে অভিযোগ দায়ের করে নির্যাতিতা নাবালিকা।

ধর্ষণের ঘটনা নিয়ে তদন্তকারী পুলিশ কর্মকর্তা বলেছেন, ‘নির্যাতিতার মা ও বিনয়ের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। ডাকাতির মামলায় বিনয় এখন জেলে।

জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আমরা তাকে হেফাজতে নেব। সিঁড়ি থেকে হাত-পা ভেঙে যাওয়ায় নির্যাতিতার মা এখন ঘর বন্দী। সে সুস্থ হলেই আমরা গ্রেপ্তার করব।

ওই দুই অভিযুক্তের সম্পর্কের বিষয়ে আমরা জানতে পেরেছি। বিনয়কে জেরার পরই বিষয়টি পরিষ্কার হবে।’

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!

Leave a Reply

Translate »