‘প্রেমের টানে’ ভারত থেকে আসা কিশোরী উদ্ধার, প্রেমিক কারাগারে

প্রেমের টানে ভারত থেকে আসা এক কিশোরীকে বিয়ের আসর থেকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। ফরিদপুরের বোয়ালমারী উপজেলার চতুল ইউনিয়নের পোয়াইল গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। ওই কিশোরী কলকাতার নদীয়া জেলার শান্তিপুর থানার সুনীল দাসের মেয়ে। সে শুক্রবার (২৬ আগস্ট) বিকেলে বোয়ালমারীতে আসে বলে জানা গেছে। বিজ্ঞাপন জানা যায়, বোয়ালমারী পৌরসভার ১ নম্বর ওয়ার্ডের গুণনবহা গ্রামের তন্ময় রাজবংশীর (২১) সঙ্গে ফেসবুকে ওই কিশোরীর প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে। এক পর্যায় ওই কিশোরী শুক্রবার বোয়ালমারীতে চলে আসে। তাকে নিয়ে চতুল ইউনিয়নের পোয়াইল গ্রামে ভগ্নিপতি গোপাল রাজবংশীর বাড়িতে ওঠেন তন্ময়। শুক্রবার রাতে সেখানে বিয়ের আয়োজন চলছিল, এ খবর পেয়ে থানা পুলিশ কিশোরীকে উদ্ধার করে।

স্ত্রী ছেড়ে চলে গিয়েছেন, এক বছরের সন্তানকে কোলে নিয়েই রিকশা চালান রাজেশ

এ সময় তন্ময়কে আটক করে পুলিশ। আজ শনিবার তাকে ৫৪ ধারায় ফরিদপুর আদালতে পাঠানো হয়েছে। থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মোহাম্মদ আব্দুল ওহাব বলেন, ‘মেয়েটির বয়স কম। তন্ময় কী কারণে মেয়েটিকে ভারত থেকে এনেছে সে জন্য ৫৪ ধারায় তাকে আদালতে পাঠানো হয়েছে। এ বিষয়ে তদন্ত করে দেখা হচ্ছে কী উদ্দেশ্যে ওই কিশোরীকে আনা হয়েছে। শনিবার ওই কিশোরীকে আদালতের মাধ্যমে কিশোর সংশোধন কারাগারে পাঠানো হয়েছে।

Leave a Reply

Translate »