বলিউড কমেডিয়ান রাজু শ্রীবাস্তব মারা গেছেন | কৌতুক অভিনেতা রাজু শ্রীবাস্তব

না ফেরার দেশে চলে গেলেন বলিউডের জনপ্রিয় কমেডিয়ান রাজু শ্রীবাস্তব (৫৮)। প্রায় দেড় মাস ধরে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন তিনি।

বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ১০টায় দিল্লির এইমস হাসপাতালে শেষ নিঃশ্বাস ত্যাগ করেছেন তিনি।

ভারতীয় সংবাদমাধ্যম ইন্ডিয়ান এক্সপ্রেসকে রাজুর ভাই দীপু মৃত্যুর খবরটি নিশ্চিত করে বলেন, ‘তিনি (রাজু) বুধবার সকালে মারা গেছেন, উনার মেয়ে অন্তরা আমাকে জানিয়েছে। ’

রাজুর মৃত্যুতে বলিউড ও ভারতের টেলিভিশন অঙ্গনে শোকের ছায়া নেমে এসেছে। শোক প্রকাশ করেছেন ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি ও দিল্লির মুখ্যমন্ত্রী অরবিন্দ কেজরীওয়ালসহ অনেকে।

রাজনৈতিক নেতাদের সঙ্গে দেখা করতে মুম্বাই থেকে দিল্লি গিয়েছিলেন রাজু। গত ১০ অগাস্ট সেখানকার একটি জিমে শরীরচর্চার সময়ে হার্ট অ্যাটাক হয় রাজু শ্রীবাস্তবের। তার পরেই তাকে দিল্লির এইমস হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। দীর্ঘদিন ধরে ভেন্টিলেশনে ছিলেন তিনি। তবে শেষমেশ প্রাণরক্ষা হলো না হাসির জাদুকরের।

জন্মের সময়ে অদলবদল হয়ে গিয়েছিলেন হাসপাতালে, বড় হয়ে তাঁরাই হলেন জীবনসঙ্গী

১৯৬৩ সালের ২৫ ডিসেম্বর কানপুরে জন্ম হয় রাজু শ্রীবাস্তবের। বাবা রমেশচন্দ্র শ্রীবাস্তব ছিলেন কানপুরের প্রখ্যাত কবি। ছেলের নাম তিনি রেখেছিলেন সত্যপ্রকাশ শ্রীবাস্তব। কিন্তু রাজু নামেই সকলে ডাকতেন। ছোটবেলা থেকেই চেনা মানুষজনের নকল করতে পারতেন। যে কোনো উপায়ে কাউকে হাসিয়ে দিতে পারতেন। কমেডিয়ান হওয়ার স্বপ্ন দেখতেন রাজু।

বলিউডের টানেই মুম্বাই পাড়ি দেন রাজু। আশির দশকের শুরুতে সিনেমায় সুযোগ পাননি তিনি। ১৯৮৮ সালে ‘তেজাব’ সিনেমায় ছোট্ট একটি চরিত্রে অভিনয় করেছিলেন। ‘ম্যায়নে প্যায়ার কিয়া’ সিনেমাতেও ছিলেন তিনি। তারপর থেকে একাধিক সিনেমায় পার্শ্ব চরিত্রে দেখা গেছে রাজুকে।

নিজেকে ‘পরমাণু অস্ত্রধারী’ রাষ্ট্র ঘোষণা উত্তর কোরিয়ার

তবে তিনি বেশি জনপ্রিয় ছিলেন স্টেজে। ‘দ্য গ্রেট ইন্ডিয়ান লাফটার চ্যালেঞ্জ’ শোয়ের রানার-আপ হন রাজু। তার হাস্যরসের খ্যাতি চারদিক ছড়িয়ে পড়ে। দারুণ জনপ্রিয় হন তিনি।

এরপর তাকে দিল্লির ‘এইমস’ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। দীর্ঘদিন ধরে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ছিলেন এই কৌতুক অভিনেতা।

সূত্র : হিন্দুস্তান টাইমস

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!

Leave a Reply

Translate »