বাবা মাদক ব্যবসায় জেলে বড় ভাই ভাদাইমা নেশা করে সাত ভাই বোনের মধ্যে এখন শারমিন ছয় বছর বয়সেই ছোট বোন পাঁচ বছর নিয়ে সংসারের হাল টানতেছে শুনুন তার নিজের মুখে কথাগুলো

বাবা মাদক ব্যবসায় জেলে বড় ভাই ভাদাইমা নেশা করে সাত ভাই বোনের মধ্যে এখন শারমিন ছয় বছর বয়সেই ছোট বোন পাঁচ বছর নিয়ে সংসারের হাল টানতেছে শুনুন তার নিজের মুখে কথাগুলো । এভাবে অসংখ্য পরিবার যেখানে বাবা বিয়ে করে অন্য আর একটা সংসার পাতে আবার এই স্ত্রী ছেড়ে যায় ।

আমরা এখন শারমিনের কাছ থেকে ও বাপ্পির কাছ থেকে শুনবো তাদের জীবন কাহিনী কিভাবে। তারা জীবন গড়ে তুলতে সে তার লেখাপড়া করতে চায় তারাও সুখী হতে চায় তারাও সমাজের নাম করতে চায় কিন্তু কে দিবে তাদের সেই সুখ সমৃদ্ধি কারণ যার বাবা বড় ভাই ভাদাইমা নেশা করে এখন মেয়ে হওয়ার কারণে আর কোথাও যেতে না ।

Read More:ব্যবসায় টাকা বিনিয়োগের আগে নিজেকে ১০ প্রশ্ন করুন!আপনার কি ব্যবসা শুরু করা উচিত?

পারার কারণে মায়ের সাথে আছে আশা করি তাদের ভিডিওটি লাইক করে শেয়ার করুন এবং তাদের সহযোগিতার হাত বাড়িয়ে দিন তাদের মোবাইল নাম্বারটি ভিডিও বলা হয়েছে অতএব নাম্বার টি শুনুন এবং তাদের যদি সহযোগিতা করার থাকে তাহলে তাদের নাম্বারে বিকাশ করে টাকা পাঠাতে পারেন।

অল্প বয়সী মেয়ে বিয়ে দেওয়ার পরিণতি কারণে আজকে রাস্তায় । জামাই বিয়ে করে শুধু ছেড়ে যায় যার ফলে দেখা যায় যে অধিকাংশ মেয়েরা রাস্তায় মায়ের কাছে থাকে কারণ এই বিবাহপ্রথা একের অধিক হওয়ার কারণেই আজকে অনেক মা-বোনেরা রাস্তায় পথের ভিখারী । তারা এক জায়গা থেকে আরেক জায়গায় বিয়ে শাদী করে আর এই আগের পরিবারে কোনো খবর রাখেনা ।  রাস্তায় মেয়েরা  বেশিরভাগই জামাই স্বামী পরিত্যক্তা কারণ তারা তাদের স্বামীদের স্বামীরা তাদেরকে ছেড়ে চলে যায় ।

Read More: গোপালদী পৌরসভার মেয়র গালি দিলো তুই মালাউন এর বাচ্চা

যার কারনে আজকে তারা অসহায় হয়ে রাস্তায় ভিক্ষা করে এদের মধ্যে অধিকাংশ মহিলাদের উপর নজর রাখতে হবে তা না হলে একদিন আমাদের মা এবং বোনেরা তাদের কোনো খোঁজ খবর রাখে না। দেখা গেছে অধিকাংশ পুরুষই প্রথম বিয়ের কিছুদিন পরে আর এবার দ্বিতীয় বিবাহ করে এবং প্রথম বিবাহের স্ত্রী সন্তানদের কোনো খোঁজ খবর রাখে না এবং তারা তখন বাধ্য হয়ে না পড়ে বাবার বাড়ি থাকবে না পরে জামাইর বাড়ি  থাকতে  তখন রাস্তায় নেমে আসে ।

 

অধিকাংশই অফিস-আদালতে অয়া বুয় হিসেবে চাকুরি করে । আসলে পুরুষের এই খামখেয়ালি এবং একঘেয়েমিতে কারণেই আজকের নারীরা আমাদের মায়ের জাতি রা রাস্তায় থাকতে বাধ্য করতেছে কিন্তু যেহেতু তাদের বাচ্চাকাচ্চা একবার হয়ে গেলে আর দ্বিতীয় বিয়ে হওয়ার সম্ভাবনা কম যার কারণে তারা না পারে বাবার বাড়ি থাকতে না পারে স্বামীর বাড়ি থাকতে তখন তারা রাস্তায় বেরিয়ে আসতে হয় ।

কিন্তু তাদের সেই দুর্বলতার সুযোগ নিয়ে অনেক বকাটে মাদকাসক্ত এবং অনেক পুরুষেরা তাদের সুযোগটা নেয় এবং তারা যেহেতু দুর্বল বা তাদের কোনো যাওয়ার জায়গা নেই সে তাদেরকে ব্যবহার করা হয় । আমাদের সমাজে একের অধিক বিয়ে করতে পারবে না এবং যদি বিয়ে করে তাদেরকে টাকা পয়সা দিতে হবে। অধিকাংশ  তাদের রাস্তায় পড়ে থাকতে হয় না পারে বাবার বাড়ি যেতে না পারে সবাই পরিচিত তবে এমন আইন করা উচিত যে পুরুষের বিয়ে এক বা একাধিক করলেও তাদের ভরণপোষণ দিয়ে কাছে রাখতে হবে বাড়িতে থাকতে দিতে হবে আর তা না হলে তাদের আধিক বিয়ে করার  অনুমতি দেওয়া যাবেনা ।

ডেইলি নিউজ টাইমস বিডি ডটকম (Dailynewstimesbd.com)এর ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব ও ফেসবুক পেইজটি ফলো করুন করুন।

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!

Leave a Reply Cancel reply