বিয়ের দাবিতে যুবকের বাড়িতে অবস্থানকারী সেই নারী সেফ হোমে

বরগুনার চান্দখালীতে বিয়ের দাবিতে এক যুবকের বাড়িতে অবস্থান নেওয়া জামালপুরের সেই নারীকে সেফ হোমে পাঠানোর আদেশ দিয়েছেন আদালত।শুক্রবার (১৩ মে) দুপুরে বরগুনার সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক নাহিদ হোসেন এ আদেশ দেন।

এর আগে গত ১০ মে জামালপুর থেকে আসা মৌ নামের ওই নারীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নিতে বেতাগী থানা পুলিশকে নির্দেশ দেন বরগুনার চিফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট আদালতের বিচারক মাহবুব আলম। পরে আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী সকালে ওই নারীকে গ্রেফতার করে বেতাগী থানা পুলিশ।

পুলিশ ও প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, গত ২৯ এপ্রিল বরগুনার বেতাগী উপজেলার চান্দখালিতে মাহমুদ হাসান নামের এক বেসরকারি বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষার্থীর বাড়িতে বিয়ের দাবিতে অবস্থায় নেয় জামালপুরের শিখা আক্তার মৌ। এ ঘটনার পর মাহমুদ হাসানের পরিবারের সবাই আত্মগোপনে গেলে মানবিক কারণে স্থানীয়দের সহযোগিতায় তালা ভেঙে ঘরে ঢুকে বসবাস শুরু করেন মৌ।

আরও পড়ুন: NASA: আন্তর্জাতিক মহাকাশ স্টেশনে ছ’মাস কাটিয়ে ভারতীয় বংশোদ্ভূত রাজা পৃথিবীতে ফিরছেন শুক্রে

এ বিষয়ে আইনজীবী সাইমুল ইসলাম রাব্বি বলেন, এ ঘটনায় ন্যায়বিচার প্রত্যাশা করে মাহমুদুল হাসানের বাবা মোশাররফ হোসেন আদালতে অভিযোগ করেন। পরে পুরো বিষয়টি আমি আদালতে উপস্থাপন করি। পরে আদালত ওই নারীর বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করার জন্য পুলিশকে নির্দেশ দেন।

এ বিষয়ে মোশাররফ হোসেন বলেন, মিথ্যা ও ভিত্তিহীন অভিযোগ দিয়ে ওই মেয়ে স্বামী সন্তান এবং সংসার ফেলে এসে আমার বাসায় অবস্থান নিয়েছে। বিষয়টি নিয়ে আমি সামাজিকভাবে হেয়প্রতিপন্ন হয়েছি। তাই নিরুপায় হয়ে আদালতের দ্বারস্থ হয়েছি।

আরও পড়ুন: মা দিবসের শুভেচ্ছা বাণী Happy Mother’s Day 2022| মা দিবসের স্ট্যাটাস, উক্তি, কিছু কথা ও ছবি

তবে পুলিশ হেফাজতে থাকার কারণে এ বিষয়ে শিখা আক্তার মৌয়ের বক্তব্য জানা সম্ভব হয়নি।

এ বিষয়ে বেতাগী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাহ আলম হাওলাদার বলেন, আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী ওই নারীর বিরুদ্ধে আমরা আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করেছি। পরে আদালত তাকে সেফ হোমে পাঠানোর নির্দেশ দিয়েছেন।

Leave a Reply

Translate »