বিয়ের আগে যে কথাগুলো বাবা-মা বলা উচিত ছেলেমেয়েকে | বিয়ে-শাদী করার আগে যে কথাগুলো আমাদের জানা দরকার

ছেলে মেয়ে বিয়ে দেওয়ার আগে যে কথাগুলো বাবা-মা বলা উচিত ছেলেমেয়েকে। বিয়ে-শাদী করার আগে যে কথাগুলো আমাদের জানা দরকার  বিবাহ করার আগে যে পরীক্ষাগুলো  আমাদের  দরকার।

প্রথমত: তাদের পছন্দের গুরুত্ব দিতে হবে।

দ্বিতীয়তঃ বয়সের সমঝোতা থাকতে হবে।

তৃতীয়তঃ পারিবারিক গোষ্ঠী ধর্মীয় সমস্ত সামঞ্জস্যতা রাখা উচিত।

চতুর্থত: সকলের জানাশোনা দেখে বুঝে মতামতের ভিত্তিতে বিয়ে-শাদী করা।

পঞ্চমত: যেহেতু বিবাহ বা পারিবারিক বন্ধন একদিনের নয় সারাটা জীবন অতিবাহিত করতে হবে তাই উভয়ের ঠিকানা জাস্টিফাই করে নিতে হবে।

ষষ্ঠতঃ উভয়ের রক্তের গ্রুপ, hbs ag, এইচ আই ভি পরীক্ষাগুলো করে নিতে হবে।

সপ্তমতঃ  তাদের যৌন সক্ষমতা অর্থাৎ সিমেন এনালাইসিস গর্ভধারণ ক্ষমতা  এগুলো পরীক্ষা-নিরীক্ষা করে নেওয়া উচিত।

আরও পড়ুন: মুক্তমতের প্রকাশ ও মুক্তবিশ্বের ভাবনা বাংলার মুক্তমনাদের মত প্রকাশের স্বাধীনতা দের তালিকা

এই সমস্ত কাজ গুলো অবশ্যই করে নিতে হবে যদি পারিবারিক সম্পর্ক স্থায়ীকরণ করতে চান। বিবাহ তাই একদিনের নয় বারবার ভেঙে সংসার গড়ে তোলা সম্ভব না । বিবাহ দেওয়ার পরে যেমন তার বাবার বাড়ি থেকে বিচ্ছিন্ন হয়ে যায় একটা মেয়ে ঠিক দ্বিতীয়বার বিয়ে দিতে যে কতটা ঘাটের জল খেতে হয় যে একবার এভাবে বিবাহ বন্ধন ছিন্ন করছে ব্রেকআপ  করছে সেই বুঝতে পারে।

আরও পড়ুন:সন্তান ছেলে নাকি মেয়ে হবে বুঝবেন ১২টি লক্ষণে,ডাক্তারি পরীক্ষা ছাড়াই কীভাবে বুঝবেন গর্ভে ছেলে নাকি মেয়ে?

কারণ এই দেশে ছেলেদের যতবার বিয়ে করবে তাদের ওর সমস্যা হয় মেয়েদেরও ঠিক তেমনি সমস্যা হয় । ভেবেচিন্তে বুঝে শুযে বিবাহ-শাদী করা উচিত। পারিবারিক অবস্থানগুলো অর্থাৎ উঁচু নিচু হলে তার সামাজিক নয় অর্থাৎ কেউ অনেক ধনী এবং কেউ একদম নির্মিত এ দেশে আসলে কখনো এডজাস্ট হয়না ।  একজন থেকে আরেকজনে এডজাস্ট করা খুব টাফ। তবে সবচেয়ে ভালো যে ছেলে মেয়েরা নিজেদের মধ্যে প্রেম করে যদি বিয়ে হয় তার চেয়েও উত্তম হয়না । তাই দিন দিন লাভমেরেজের প্রয়োজনীয়তা অপরিসীম বেড়েই চলেছে কারণ এখন বর্তমানে লাবমেরিজ ছাড়া বিয়ে-শাদী দেওয়ার যে কতটা জটিল হয়ে পড়েছে তা একমাত্র অবিবাহিত ছেলে বুঝতে পারছ।তারপরও যদি তাদের ব্রেক হয় সেটা পরের কথা । বিয়ে-শাদী দেওয়ার আগে অন্তত একবার এই কথাগুলো ভাবুন এবং চিন্তা করুন।

যারা প্রেম করে বিয়ে করছে তাদের বিয়ে-শাদী অতিদ্রুত হয়েছে এবং যারা প্রেম ছাড়া বিএফ দেবে বাবা-মা বিয়ে দেবে পরিবার বিয়ে দেবে সমাজ তাদের বিয়ে-শাদী নিয়ে খুব হিমশিম খেতে হচ্ছে কারণ তাদের পছন্দের পাত্রের সাথে যেকোনো মুহূর্তে তাদের আসলে বিয়ে-শাদী করা উচিত। আগের দিন নেই যে বা পরিবার থেকে একজনকে পছন্দ করে বিয়ে দিলাম আর সবকিছু ঠিকঠাক হয়ে গেল স্বামী-স্ত্রী সুখের সংসার করল তা কিন্তু নয় এখন আপনার পিতা-মাতার দেখে বিয়ে দিলে দেখা যায় দুইদিন পরে ছেলের বউ পছন্দ হয়না মেয়ের জামাই পছন্দ হয়না ঝগড়াঝাটি লেগে থাকে এরপরে আবার যার যার গন্তব্য বাপ মায়ের কাছে তখন বাপ মার কাছে একটা বোঝা মনে হয় সাধারণত মেয়েদের ক্ষেত্রে। তাই পরিবারের যোগ্যতা ও দক্ষতা অনুযায়ী আপনার মেয়ে সন্তানগুলো যোগ্যতা সম্পন্ন করে তুলেন যাতে একটা কিছু তারা একা দাঁড়িয়ে এক পায়ে দাঁড়িয়ে সংসার করতে পারে বা নিজের যোগ্যতা অনুযায়ী নির্ভরশীল না হয়ে পরের উপর সংসার করতে পারে বা নিজের নিজের নিজের জীবন যাপন নিজে করতে পারে।

ডেইলি নিউজ টাইমস বিডি ডটকম (Dailynewstimesbd.com)এর ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব ও ফেসবুক পেইজটি ফলো করুন করুন।

বিয়ে করলে কি কি রোগ ভাল হয়, মেডিকেল টেস্ট কিভাবে করা হয়, বিয়ের শারীরিক উপকারিতা, বিয়ের আগে মেয়েদের কি প্রশ্ন করতে হয়, মেডিকেল টেস্ট খরচ মেডিকেল টেস্টের নাম,ছেলে মেয়ে বিয়ে দেওয়ার আগে যে কথাগুলো বাবা-মা বলা উচিত ছেলেমেয়েকে।, বিয়ে-শাদী করার আগে যে কথাগুলো আমাদের জানা দরকার,  বিবাহ করার আগে যে পরীক্ষাগুলো  আমাদের  দরকার।

Leave a Reply Cancel reply