ভাই-বোন বিয়ে করে ঘনিষ্ঠ ছবি পোস্ট, জেলে পাঠানোর দাবি তুলে সরব নিন্দকেরা

পারিবারিক অনুষ্ঠানে একজোট হয়েছিলেন সবাই। সেখানেই আলাপ সৎ ভাই-বোনের। তার পর প্রেম এবং বিয়ে। মধুচন্দ্রিমার ছবি এবং ভিডিয়ো ফলাও করে সমাজমাধ্যমে পোস্ট করে সমালোচিত হলেন ওই নবদম্পতি। শুভেচ্ছা, আশীর্বাদের বদলে কেউ ওই দম্পতিকে মানসিক বিকারগ্রস্ত বলে সমালোচনা করলেন। কেউ বললেন, দম্পতিকে ধরে জেলে দেওয়া উচিত। তাঁদের জন্যই নাকি অসুস্থ হচ্ছে সমাজ। তবে পাশে দাঁড়িয়েছেন অনেকে। তাঁরা অবশ্য বলছেন, ওঁরা তো সে অর্থে ভাই-বোন নন। তাই বিয়ে করতেই পারেন। সব মিলিয়ে সমাজমাধ্যমে আলোচিত এই দম্পতি।পাত্র সামুলি এরিকসন।

পাত্রীর নাম মাটিল্ডা এরিকসন। বাড়ি ফিনল্যান্ডের এস্পোয়। দিন কয়েক আগে মধুচন্দ্রিমায় গিয়ে নিজেদের একটি ভিডিয়ো টিকটকে পোস্ট করেন তাঁরা। তার পরেই শুরু হয় জোর সমালোচনা।

যদিও নবদম্পতি তাঁদের অবস্থানে অনড়। তাঁরা বলছেন, সত্যিকারের ভালবাসা এমনই হয়। সংবাদমাধ্যম সূত্রে খবর, ২০১৮ সালে মাটিল্ডার মায়ের ৫০তম জন্মদিনের অনুষ্ঠানে আমন্ত্রিত ছিলেন তাঁর সৎ ভাই সামুলি।

হরিণী যোনি চেনার উপায় ? হরিণী মেয়েদের স্বভাব বৈশিষ্ট্য

তাঁরা মায়ের দু’টি পৃথক বিবাহের সন্তান। প্রথম বার পরিচয়ের পর একে অপরের প্রতি তীব্র আকর্ষণ অনুভব করেন তাঁরা। প্রথমে শুধুই ভাল বন্ধু ছিলেন। কিন্তু সময় যেতে একে অপরের প্রেমে পড়েন। অবশেষে গত অক্টোবর মাসে বিয়ে করেন দু’জনে। দম্পতির দাবি, তাঁদের বিয়েতে বাড়ির সবাই খুশি। কিন্তু প্রতিবেশী এবং পরিচিতরা বিরূপ প্রতিক্রিয়া জানাচ্ছেন। কেউ কেউ তাঁদের ‘অসুস্থ’ বলে কটাক্ষও করছেন।

ভাই-বোন বিয়ে

Leave a Reply Cancel reply