হিজড়া কাকে বলে? হিজড়া কত প্রকার ও কি কি?বৈষম্যে বিবর্ণ হিজড়াদের জীবন

হিজড়া কাকে বলে?

হিজড়া (অনুবাদের জন্য, দেখুন) দক্ষিণ এশিয়ায় ব্যবহৃত একটি পরিভাষা – বিশেষ করে, ভারতের রূপান্তরকামী বা রূপান্তরিত লিঙ্গের নারীদের (পুরুষ-হতে-নারীতে রূপান্তরিত লিঙ্গ) বুঝিয়ে থাকে। ভারতের বিভিন্ন স্থানে, রূপান্তরিত লিঙ্গের হিজড়ারা আরাভানি, আরুভানি এবং জাগাপ্পা নামেও পরিচিত।

নারীও নয় আবার পুরুষও নয়- এধরনের একটি শ্রেণীকে আমরা প্রায়ই রাস্তাঘাটে কিংবা দোকানপাটে বিভিন্নরকম অঙ্গভঙ্গি করে চাঁদা তুলতে দেখি। আমরা যারা সভ্যসমাজের মানুষ, তারা এই অবহেলিত শ্রেণীটিকে ‘হিজড়া’ বলে ডাকি।

হিজড়া নারী আর পুরুষের মত নয়, হিজড়াদের সাথে কথা বলে জানা গেছে, হিজড়া শব্দকে তারা অভিশাপ বা গালি হিসেবে মনে করেন। আসলে তারা হচ্ছেন, ট্রানজেন্ডার। প্রকৃতির নিয়তিতেই এরা স্বাভাবিক মানুষের পরিবর্তে হিজড়ায় রূপান্তরিত হয়। ঠিক যেমনটি ঘটে থাকে একজন প্রতিবন্ধীর ক্ষেত্রে। কিন্তু দুঃখের ব্যাপার হলো, প্রতিবন্ধীদের জন্যে ইতিবাচক দৃষ্টিভঙ্গি গড়ে তুলতে এবং তাদেরকে সমাজের মূলস্রোতের অন্তর্ভূক্ত করতে নানারকম সরকারি-বেসরকারি আন্দোলন ও পদক্ষেপ দৃষ্টিগোচর হলেও হিজড়াদের কল্যাণে এরকম কোনো কর্মসূচি চোখে পড়ে না আমাদের দেশে।

হিজড়া ব্যক্তিদের একটি লিঙ্গ পরিচয় বা লিঙ্গ প্রকাশ থাকে যা তাদের জন্মের সময় নির্ধারিত লিঙ্গ থেকে পৃথক করে । কিছু হিজড়া ব্যক্তি যারা চিকিত্সা সহায়তা থেকে একটি লিঙ্গ থেকে অন্য লিঙ্গে রূপান্তরিত করতে চান তারা হিজড়া হিসাবে চিহ্নিত করেন । লিঙ্গ , প্রায়শই সংক্ষিপ্ত ট্রান্স , এছাড়াও একটি হল বৃহত্তর শব্দ ; এমন লোকদের অন্তর্ভুক্ত করার পাশাপাশি যাঁদের লিঙ্গ পরিচয় তাদের নির্ধারিত লিঙ্গের বিপরীত ( ট্রান্স পুরুষ এবং ট্রান্স মহিলারা ), এতে এমন ব্যক্তিদেরও অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে। নন-বাইনারি বা জেন্ডিকারী । হিজড়া সম্পর্কিত অন্যান্য সংজ্ঞায় এমন ব্যক্তিদেরও অন্তর্ভুক্ত করা হয় যারা তৃতীয় লিঙ্গের অন্তর্ভুক্ত , অথবা অন্যথায় হিজড়া লোককে তৃতীয় লিঙ্গ হিসাবে ধারণ করে । হিজড়া শব্দটি ক্রস-ড্রেসারগুলি অন্তর্ভুক্ত করার জন্য খুব বিস্তৃতভাবে সংজ্ঞায়িত করা যেতে পারে ।

হিজড়া হওয়া যৌনতা থেকে পৃথক । হিজড়াদের বিষমকামী, সমকামী, যেমন শনাক্ত করতে পারে উভকামী , অযৌন , বা তাদের যৌন অভিযোজন লেবেল পতন হতে পারে। মেয়াদ হিজড়াদের এছাড়াও থেকে আলাদা হয় উভলিঙ্গতা , একটি শব্দ যে প্রকৃত যৌন বৈশিষ্ট্য “যে পুরুষ বা মহিলা সংস্থা টিপিক্যাল বাইনারি ধারণার মাপসই করা হবে না” দিয়ে জন্ম মানুষ বর্ণনা করা হয়েছে। হিজড়া বিপরীতে হ’ল সিজেন্ডার , যা তাদের লিখিত পরিচয় তাদের নির্ধারিত লিঙ্গের সাথে মেলে এমন ব্যক্তির বর্ণনা দেয়।

ব্যক্তিরা যে মাত্রায় প্রকৃত, খাঁটি এবং স্বাচ্ছন্দ্যের সাথে বাহ্যিক উপস্থিতির মধ্যে অনুভূত হয় এবং তাদের আসল পরিচয় স্বীকার করে তাকে ট্রান্সজেন্ডার সম্মিলন বলে । অনেক হিজড়া লোক লিঙ্গ ডিসফোরিয়ার অভিজ্ঞতা অর্জন করে এবং কেউ কেউ হরমোন রিপ্লেসমেন্ট থেরাপি , সেক্স রিসাইনমেন্ট সার্জারি বা সাইকোথেরাপির মতো চিকিত্সা করে । সমস্ত হিজড়া লোকেরা এই চিকিত্সাগুলি পছন্দ করে না এবং কেউ কেউ আর্থিক বা চিকিত্সার কারণে তাদের পাসও করতে পারে না।

অনেক হিজড়া লোক কর্মক্ষেত্রে এবং জনসাধারণের থাকার জায়গা এবং স্বাস্থ্যসেবা অ্যাক্সেসে বৈষম্যের মুখোমুখি হয় । অনেক জায়গায়, তারা বৈধভাবে বৈষম্য থেকে সুরক্ষিত নয়।

সভ্যসমাজ থেকে একপ্রকার নির্বাসিত এই শ্রেণীটি তাই বিকৃত মানসিকতা নিয়ে গড়ে ওঠে। পেটের তাগিদে জড়িয়ে পড়ে নানারকম অপরাধমূলক কার্যক্রমে। অথচ ‘মানুষ’ হিসেবে স্বীকৃতি দিয়ে এসব হিজড়াদের সামাজিক অধিকারগুলো নিশ্চিত করতে পারলে তারাও সমাজে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখতে পারে।

খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, পৃথিবীতে দুই ধরনের হিজড়া রয়েছে। পুরুষের মতো শারীরিক গঠন আর মানসিকভাবে নারীর স্বভাব, তাদেরকে অকুয়া বলা হয়।

এছাড়া, অন্য প্রকৃতির যারা তাদেরকে জেনেনা বলা হয়। অকুয়া ও জেনেনা জাতির হিজড়া হচ্ছে প্রকৃতির সৃষ্টি।

চিকিৎসকরা জানান, বৈজ্ঞানিক দৃষ্টি বা চিকিৎসা বিজ্ঞানের দৃষ্টিতে ডিম্বাণূু ও শুক্রাণু এক্স-এক্স প্যাটার্নে কণ্যা শিশু আর এক্স-ওয়াই প্যাটার্নে পুত্র শিশুর জন্ম গ্রহণ করে। জরায়ূতে ভ্রুনের বিকাশ হওয়ার সময় মায়েদের বিভিন্ন প্রকার শারীরিক ও মানুষিক সমস্যার সৃষ্টি হয়ে থাকে। আর এক্স- এক্স- ওয়াই, আবার এক্স-ওয়াই-ওয়াই এর প্যার্টার্নে ছেলে বা মেয়ে হয়ে থাকে। এরপর জেনেটিক পরির্বতনের কারণে হিজড়ায় পরিণত হয়।

হিজড়া এর প্রকারভেদ

শারীরিক ও মানসিক গঠনের উপর নির্ভর করে এদেরকে ৬ ভাগে ভাগ করা যায়। শারীরিক ভাবে পুরুষ কিন্তু মানষিক ভাবে নারী বৈশীষ্ট্য এর অধীকারী হিজড়াদের বলা হয় অকুয়া, অন্য হিজড়াদের ভরা হয় জেনানা, আর মানুষের হাতে সৃষ্ট বা ক্যাসট্রেড পুরুষদের বলা হয় চিন্নি।

হিজড়ার বৈজ্ঞানিক ব্যখ্যা 

এক্স এক্স প্যাটার্ন ডিম্বানুর সমন্বয়ে কন্যা শিশু আর এক্স ওয়াই প্যাটার্ন থেকে সৃষ্ট হয় ছেলে শিশু। ভ্রুনের পূর্ণতার স্তর গুলোতে ক্রোমোজোম প্যাটার্নের প্রভাবে ছেলে শিশুর মধ্যে অন্ডকোষ আর কন্যা শিশুর মধ্য ডিম্ব কোষ জন্ম নেয়। অন্ডকোষ থেকে নিসৃত হয় পুরুষ হরমোন এন্ড্রোজেন এবং ডিম্ব কোষ থেকে নিসৃত হয় এস্ট্রোজেন। ভ্রুনের বিকাশকালে নিষিক্তকরন ও বিভাজনের ফলে বেশকিছু অস্বাভাবিক প্যাটার্নের সৃষ্টি হয় যেমন এক্স এক্স ওয়াই অথবা এক্স ওয়াই ওয়াই। এর ফলে বিভিন্ন গঠনের হিজড়া শিশুর জন্ম হয়।
অধিকাংশই হিজড়াই স্বাভাবিক পরিবারের সাথে সংসার করতে পারবে। অনেকের স্ত্রী ও সন্তান থাকার পরও চিকিৎসার মাধ্যমে শারীরিক গঠন পরিবর্তন করে সমাজে হিজড়া হিসেবে পরিচয় দিয়ে আসছে। এ পরিচয়ের সুবাধে অনেকেই চাঁদাবাজী, সন্ত্রাসী ও অসামাজিক কাজকর্মে লিপ্ত হচ্ছে। 

হিজড়াদের সম্পর্কে কি বলে ইসলাম

শান্তি এবং মানবতার ধর্ম ইসলাম সব মানুষের বেঁচে থাকার মৌলিক অধিকার নিশ্চিত করেছে। এ সময়ের সচেতন ও বিচক্ষণ আলেম, বেশক’টি মাদ্রাসার শায়খুল হাদিস ও বাংলাদেশ কওমি কাউন্সিলের চেয়ারম্যান প্রিন্সিপাল মাওলানা আবদুস সামাদ।

হিজড়াদের ইসলামে কীভাবে দেখা হয়? জানতে চাইলে বলেন, ‘ইসলাম হিজড়াদের ওপর অবিচার করেনি। অন্যসব মানুষের মতো একজন মানুষ হিসেবে দেখেছে হিজড়াদের। পুরুষ হলে পুরুষের, নারী হলে নারীর বিধান মেনে চলতে হবে তাদের। একজন নারীর যেমন নামাজ, রোজা ও পর্দাসহ ইসলামের সব বিধান মানতে হয়, একজন নারী হিজড়াকেও এগুলো মেনে চলতে হয়। এভাবে পুরুষের মতো পুরুষ হিজড়াকেও। মৃত সাধারণ মানুষের মতো তাদেরও কাফন, দাফন ও জানাজা দিয়ে কবর দেয়ার হুকুম। তারা এগুলো মানে না বলেই তো তাদের এ করুণ অবস্থা।’ একটি চক্র সুস্থ মানুষের অঙ্গহানি করে হিজড়া বানিয়ে ফেলছে। কেউ নিজের আগ্রহে হিজড়া হচ্ছে। এদের ব্যাপারে ইসলামের বিধান কী? উত্তরে তিনি বলেন, ‘অঙ্গহানি নাজায়েজ। মারাত্মক অপরাধ। কারও জটিল দুরারোগ্য ব্যথা হলেও ধার্মিক অভিজ্ঞ ডাক্টারের পরামর্শ ছাড়া অঙ্গ কাটার কোন সুযোগ ইসলাম দেয়নি। এ ছাড়া একজন সুস্থ মানুষের অঙ্গহানি করে অসুস্থ বানানো, সমাজ ও পরিবার থেকে বিচ্ছিন্ন করা অমার্জনীয় অপরাধ। কঠোর হস্তে দমন করা উচিত।’

চাঁদাবাজি, মাদক ও পতিতাবৃত্তির মতো জঘন্য অপরাধে জড়িত দেখা যায় হিজড়াদের, এর কারণ কী? এ প্রশ্নে তিনি বলেন, ‘হিজড়া বানানো বা হওয়ার লক্ষ্য কিন্তু ইনকাম। হিজড়াদের কোন আইনি জটিলতা না থাকায় তারা অবাধে অপরাধ বিস্তার করে যাচ্ছে।’

হিজড়াদের স্বাভাবিক জীবনে ফিরিয়ে নেয়ার জন্য কী করা উচিত? এমন প্রশ্নে মাওলানা সামাদ বলেন, ‘প্রথমত হিজড়াপ্রজনন কেন্দ্র বন্ধ এবং এর কারিগর ডিগ্রিধারী ডাক্টারদের বিরুদ্ধে পদক্ষেপ নিয়ে এগুলো দমন করতে হবে। বিভিন্ন পত্রিকায় এদের চিহ্নিতও করা হয়েছে। তাতে হিজড়া উৎপাদন বন্ধ হবে। এরপর সামাজিকভাবে আড়চোখে না দেখে একজন মানুষের মতো সুবিধা দিতে হবে। এছাড়া মৌলিক হিজড়াদের সমাজকল্যাণ মন্ত্রণালয় থেকে স্থায়ী ব্যবস্থা নিলে হিজড়ারা স্বাভাবিক জীবনে ফিরে যাবে বলে আশা করা যায়।’ পুরুষাঙ্গ কেটে সুস্থ মানুষকে হিজড়া বানানো হয় একথা শুনে আঁতকে উঠলেন দেশ মাটি হাউজিং লিমিটেডের ভাইস চেয়ারম্যান, অত্যন্ত ধার্মিক ব্যক্তি আলহাজ মোহাম্মদ আবুল খায়ের ভূঁইয়া। তিনি বলেন, ‘অভাব এবং অসচেতনতাই এ কাজকে ত্বরান্বিত করেছে। মানুষের সম্মানের ভয় হিজড়াদের অপরাধপ্রবণতা বাড়িয়েছে। তারা যেখানে সেখানে কাপড় উদাম করে ফেলে। হিজড়া, অসহায় এবং অভাবীদের জন্য কারিগরি প্রশিক্ষণের মাধ্যমে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করলে অপরাধপ্রবণতা কমবে। তারা স্বাভাবিক ও সুন্দর জীবন লাভে ধন্য হবে।’

সরকারিভাবে তৃতীয় লিঙ্গের স্বীকৃতি পেলেও বৈষম্যের শিকার হয়ে বিবর্ণ জীবন কাটছে হিজড়াদের। আজও বদলায়নি সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গি, বদলায়নি তাদের ভাগ্য। পরিবার থেকে শুরু করে সমাজের সর্বত্র কেবল অপমান, উপহাস, তাচ্ছিল্য আর নিগ্রহের শিকার অধিকাংশ হিজড়াদের দিন কাটে ভিক্ষাবৃত্তিতে। তবে এই ভিক্ষাবৃত্তি থেকে বেরিয়ে এসে তারাও সমাজের অন্য দশজনের মতোই স্বাভাবিক জীবন ফিরে যেতে চান।

ক্লেদ, দুঃখ ও বঞ্চনাকে সঙ্গী করে এগিয়ে চলা এসব তৃতীয় লিঙ্গের মানুষরাও স্বপ্ন দেখেন দিন বদলের। কর্মসংস্থান আর বাসস্থানের ব্যবস্থা হলেই বেঁচে থাকার সার্থকতা খুঁজে পাবেন এমটাই বিশ্বাস তাদের।

এদেরই একজন নীলফামারীর ডিমলা উপজেলার অপু। ১৯৯৫ সালের ৫ ফেব্রয়ারি মায়ের কোল আলোকিত করে জন্ম নেয় অপু। কিন্তু কে জানবে এ জন্মই তার আজন্ম পাপ। বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে বদলে যেতে থাকে সে। স্রোতের বিপরীতে চলতে থাকা অপু এক সময় হার মানে এই সমাজ-সংস্কৃতির কাছে।

স্থানীয় একটি স্কুল থেকে এসএসসি এবং কলেজ থেকে উচ্চ মাধ্যমিক পাস করার পর রংপুর সরকারি কলেজে অর্থনীতি বিষয়ে অনার্সে ভর্তি হন। তৃতীয়বর্ষ পর্যন্ত পড়াশেখা করলেও আর এগুতে পারেননি। স্নাতক সম্পন্ন করতে পারলেও তৃতীয় লিঙ্গের হওয়ায় অপুর কপালে জোটেনি কোনো চাকরি।

 

১২-১৩ বছর আগে নিজ বাড়ি থেকে বেরিয়ে আসা অপুর এখন দিন চলে ভিক্ষাবৃত্তি করে। সকাল হলেই বেরিয়ে পড়তে হয় জীবন ও জীবিকার প্রয়োজনে। তবে এ জীবন তিনি চান না।

অপু জানান, লেখাপড়া শিখেও কোনো চাকরি জোটেনি। চাকরির পরীক্ষা দিতে গেলে হিজড়া পরিচয় জানার পর তাকে বাদ দিয়ে অন্যকে সুযোগ দেয়া হয়েছে। কারও করুণা দিয়ে নয়, কর্মসংস্থানের সুযোগ পেলে নিজের যোগ্যতায় তিনি বেঁচে থাকতে চান।

অপুর মতোই আরও একজন মাসুদ থেকে নিজের নাম দিয়েছেন দোলা। মা-বাবার একমাত্র সন্তান হয়েও ঠাঁই মেলেনি পরিবারে। এসএসএসি পাস করে রংপুর পলিটেকনিক্যালে ভর্তি হলেও শেষ পর্যন্ত পড়ালেখা করা হয়ে ওঠেনি তার। নগরীর নুরপুরে অপুর সঙ্গে তিনিও ভাড়াবাসায় বসবাস করছেন, বেছে নিয়েছেন ভিক্ষাবৃত্তি।

অপু-দোলার মতো এমন অনেক শিক্ষিত তৃতীয় লিঙ্গের মানুষ কেবল একটি উদার সমাজ নির্মাণের প্রত্যাশা করেন। যেখানে লিঙ্গ-বৈষম্যের শিকার হবে না কেউ।

রংপুর জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের তথ্য মতে, রংপুর জেলায় ৩৭০ জন তালিকাভুক্ত হিজড়া রয়েছেন। যার অধিকাংশই বিভিন্ন উপজেলা ও জেলা শহরে ছড়িয়ে-ছিটিয়ে বসবাস করছেন। তালিকাভুক্ত ৩৭০ জন হিজড়ার মধ্য থেকে ১৮০ জনকে বিভিন্ন ট্রেডে (সেলাই, রান্না, কম্পিউটার, পার্লার, মোবাইল-রেডিও-টেলিভিশন সার্ভিসিং) প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে।

রংপুরের তৃতীয় লিঙ্গ জনগোষ্ঠীর দলনেতা আনোয়ারুল ইসলাম রানা বলেন, তালিকাভুক্ত ৩৭০ জন হিজড়ার মধ্যে হাতেগোনা ১৪/১৫ জন বিভিন্ন কর্মসংস্থানের সঙ্গে জড়িয়ে পড়লেও দেড়শতাধিক হিজড়া বেছে নিয়েছেন ভিক্ষাবৃত্তি। বাকিরা পরিবারের সঙ্গে থেকে পড়ালেখা করছেন। কেউবা বেকার হয়ে ঘুরে বেড়ান।

প্রশিক্ষণ শেষে দশ হাজার করে টাকা দেয়া হলেও তা পর্যাপ্ত না। একটা পার্লার বা সার্ভিসিং সেন্টার দিতে হলে অনেক টাকার প্রয়োজন হয়। প্রয়োজনীয় মূলধন না থাকায় বাধ্য হয়ে ভিক্ষাবৃত্তিতে থেকে গেছেন প্রশিক্ষণপ্রাপ্তরা।

রানা বলেন, সরকারিভাবে বিভিন্ন ভাতা চালুর কথা বলা হলেও ৩৭০ জন হিজড়ার মধ্যে মাত্র দু’জন বয়স্ক ও ১২ জন শিক্ষা ভাতা পাচ্ছেন। যা দিয়ে জীবনধারণ করা সম্ভব না।

 

কেউ বাসা ভাড়া দিতে চায় না। অনেক কষ্টে নগরীর নুরপুরে তিন রুমের একটি পুরোনো স্যাঁতসেঁতে জরাজীর্ণ বাড়ি ভাড়া নিয়ে ২০/২২ জন গাদাগাদি করে থাকছেন। অন্য এলাকাতেও হিজড়াদের এভাবেই দিন কাটছে।

রানা আরও বলেন, বাসস্থানের জন্য দীর্ঘদিন ধরে জেলা প্রশাসকের কাছে আবেদন করলেও তা বাস্তবায়ন হয়নি। কেবল আশ্বাসই মেলে। সরকার ভূমিহীন-গৃহহীনদের ঘর দিচ্ছে, রোহিঙ্গাদের পুনর্বাসনে উদ্যোগ নিয়েছে। আমরাও পুনর্বাসন-কর্মসংস্থান চাই। কর্মস্থান ও বাসস্থানের সুযোগ পেলে হিজড়ারাও বেঁচে থাকার সার্থকতা খুঁজে পেত।

রংপুর জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালক আব্দুল মতিন বলেন, কোনো শ্রেণির মানুষই যেন পিছিয়ে না পড়ে এজন্য বর্তমান সরকার নানামুখী পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। এরই লক্ষ্যে ২০১৩ সাল থেকে সমাজসেবা অধিদফতরের আওতায় বিভিন্ন কর্মসূচি গ্রহণ করা হয়। ইতোমধ্যে রংপুর জেলার তালিকাভুক্ত ৩৭০ জন হিজড়ার মধ্য থেকে বিভিন্ন ট্রেডে ১৫০ জনকে পঞ্চাশ দিন এবং ৩০ জনকে ১২ দিন মেয়াদী প্রশিক্ষণ দেয়া হয়েছে। এর মধ্যে ১৫ জন বিভিন্ন কর্মসংস্থানে যুক্ত হয়েছেন। হিজড়াদের প্রশিক্ষণের আওতায় এনে কর্মসংস্থানের সুযোগ সৃষ্টির চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।

জেলা প্রশাসক আসিব আহসান বলেন, কিছু হিজড়াকে প্রশিক্ষণের আওতায় আনা হয়েছে। এরমধ্যে কয়েকজন কর্মসংস্থানে জড়িয়ে পড়েছেন। পর্যায়ক্রমে তাদের কর্মসংস্থানের বিষয়ে আরও পদক্ষেপ গ্রহণ করা হবে।

জেলা প্রশাসক আরও বলেন, সিটি কর্পোরশেনের ভেতরে তাদের বাসস্থানের জন্য প্ররিকল্পনা গ্রহণ করা হয়েছে। ইতোমধ্যে জেলা সমাজসেবা কার্যালয়ের উপ-পরিচালককে নির্দেশনা দেয়া হয়েছে। উপ-পরিচালকসহ হিজড়া জনগোষ্ঠীর কয়েকজনকে নিয়ে জায়গা পরিদর্শন করা হবে। যদি তারা সেখানে থাকতে আগ্রহী হয় তাহলে প্রাথমিক পর্যায়ে একসঙ্গে ২০ জনের থাকার ব্যবস্থা করা যাবে। এছাড়া উপজেলা পর্যায়ে যে ইউনিয়নগুলোতে আমাদের ঘর আছে তারা সেখানে একসঙ্গে থাকতে চাইলে দেয়া হবে।

Read More: হ্যাল এলরড 10টি বানী হ্যাল এলরড 10টি বানী

কালিদাস গোপাল ভাঁড় খনার জনপ্রিয় বচন ধাঁধাঁ 1000 শালি দুলাভাই এর রসের ধাঁধা সমগ্র ডাউনলোড PDF

মজার তথ্য ✓ হাসির জোকস ✓ বাংলা হট জোকস ✓ বুদ্ধির ধাধার বই সমগ্র ডাউনলোড PDF

 

Most Popular Downloads:

Adobe Premiere Pro CC

TechSmith Camtasia Studio 8.6.0 

TechSmith Camtasia Studio 9.1 

TechSmith snagit

sonyvags

Download and Install Explaindio Video Creator For FREE 2021

ProShow Producer 9 Full with Crack

Download and Install Sparkol VideoScribe FREE

Download and Install Edius Pro For FREE

Top Popular Downloads:

Top Maltimedia Media Player Download

wondershare-filmorago-Free download

বাণী চিরন্তণী all Quotes 1000 TOP POPULAR DOWNLOADS.pdf

Tutorial html blog code all.pdf

Himu Ebong Harvard Ph.D. Boltu Bhai By Humayun Ahmed [2011] PDF Downloads

বিখ্যাত লেখক ও মণীষীদের নির্বাচিত ৩০০০ টি [বাংলাঃ ১২০০ English 1800 ] বানী বা উক্তি সমূহের বাংলা বই বা ই-বুক বা PDF [ কম্পিউটার + মোবাইল ভার্সন ]

বাণী চিরন্তণী all Quotes 1000 TOP POPULAR DOWNLOADS.pdf

পড়ুন

আরও পড়ুনStephen Hawking Biography

বন্ধুরা, এই পোস্টে আমরা আপনাকে  পোস্টটি সম্পর্কে বলেছি। আশা করি আপনি এই পোস্টটি পছন্দ করবেন।

আপনার এই পোস্টটি কেমন লেগেছে, মন্তব্য করে আমাদের জানান এবং এই পোস্টে কোনও ত্রুটি থাকলেও আমরা অবশ্যই এটি সংশোধন করে আপডেট করব।

 

Biography, Famous Quotes ও উক্তি সমূহ লেখাটি ভালো লেগে থাকলে বন্ধুদের সাথে শেয়ার করো। এই ধরনের লেখার নিয়মিত আপডেট পেতে আমাদের ফেসবুক পেইজটি ফলো ।

 

ডেইলি নিউজ টাইমস বিডি ডটকম (Dailynewstimesbd.com)এর ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব ও ফেসবুক পেইজটি ফলো করুন করুন।

Subscribe to the Daily News Times bd.com YouTube channel and follow the Facebook page.

 

উক্ত আর্টিকেলের উক্তি ও বাণীসমূগ বিভিন্ন ব্লগ, উইকিপিডিয়া এবং .. রচিত গ্রন্থ থেকে সংগ্রহ করা হয়েছে।

আরও পড়তে পারেনহিজড়াদের কি মাসিক হয় হিজড়া সন্তান কেন হয়?

আরও পড়ুন:  সুচিত্রা সেন শৈশব, ক্যারিয়ার এবং ব্যক্তিগত জীবন | সুচিত্রা সেনের স্মৃতিঘেরা পাবনা

Read More: ভালবাসার কথা, ভালবাসার বানী আবেগি উক্তি | 

তথ্যসূত্র: Wikipedia, Online

Sourc of : Wikipedia, Online Internet

 

 ছবিঃ ইন্টারনেট

দৃষ্টি আকর্ষণ এই সাইটে সাধারণত আমরা নিজস্ব কোনো খবর তৈরী করি না.. আমরা বিভিন্ন নিউজ সাইট থেকে খবরগুলো সংশ্লিষ্ট সূত্রসহ প্রকাশ করে থাকি.. তাই কোনো খবর নিয়ে আপত্তি বা অভিযোগ থাকলে সংশ্লিষ্ট নিউজ সাইটের কতৃপক্ষের সাথে যোগাযোগ করার অনুরোধ রইলো। ধন্যবাদ সবাইকে।

হিজরা সম্পর্কে তথ্য যা আপনার মনকে উড়িয়ে দেবে,হিজড়া, পুংলিঙ্গ কেটে হিজড়া বানানোর ভয়ংকর কাহিনী Transgender hijra News,জয়যাত্রা। হিজড়াদের যাপিত জীবন ধারা,বাংলাদেশে হিজড়াদের আইনগত স্বীকৃতিপ্রদানে নীতিমালা লঙ্ঘন,হিজড়াদের জন্মই যেন আজন্ম পাপ,যেভাবে একটি ছেলে হিজড়া হয়ে যায়,হিজড়া ইংলিশ মিনিং, নারী হিজড়া, হিজড়া কেন হয়, হিজরা অঙ্গ, হিজড়াদের দেহের গঠন, হিজড়া সাহাবী, হিজড়া প্রতিশব্দ, হিজড়াদের অপারেশন,Transgender Equality Network,Transgender and Gender, Nonconforming Policy Guidance,Trans and gender diverse people,Transgender in Bangladesh:,Facts About Hijra’s ,t talks,latest t talks video,t talks video,t talks latest videos,telugu talks,telugu mojo,vikram aditya,venky planet,vut,hijra chandrakala,hijras,hijra,transgender,trans,transgender female,unknown facts about hijra,hijras marriage,hijra special interview,hijra life style,first transgender police,hijras festival,jabardasth pawan real face,hijra marriage a man,hijra love marriage,india first transgender police,transgender problems,man suffer with hijrasThat Will Blow Your Mind Of, female eunuch pronunciation, eunuch meaning in urdu ,how to pronounce eunuch in bible

Leave a Reply

Translate »