একাত্তরের ছেলে হারানো 43 বছর পর খুঁজে পেয়ে মা কবর জিয়ারতের সময় চোখের জলে ভাসিয়ে দিলেন লক্ষ কোটি সালাম মাকে।

এক মা তাঁর সন্তানকে হারিয়েছিলেন ৭১ সালে। যুদ্ধে গিয়েছিল আর সে ফিরে আসে নি। অনেক খোঁজাখুঁজি করে জানতে পারলেন তার ছেলে সিলেটের কোন এক অঞ্চলে যুদ্ধ করার সময় শহীদ হয়েছেন।
কিন্তু কোথায় তাকে কবর দেওয়া হয়েছিল সেই খোঁজ কেউ দিতে পারেনি। যখন সিলেট অঞ্চলের কোন মুক্তিযোদ্ধার খোঁজ পেয়েছেন তখন তার কাছে ছুটে গিয়েছেন এই মা তার ছেলের কবর কোথায় আছে সে বিষয়ে কিছু জানতে। ৪৩ বছর ধরে এভাবেই খুঁজে খূঁজে আজ এই মায়ের বয়স ৯৫ বছর।

অবশেষে সেই মা খুঁজে পেলেন তার সাত রাজার ধন আদরের পুত্রের কবর। এই মায়ের সন্তান “শহীদ আতাহার উদ্দিন” যুদ্ধে শহীদ হয়েছিলেন সিলেটের সুনামগঞ্জের ডলুরা সীমান্তে। সেখানেই তাকে কবর দেওয়া হয়।
মুক্তিযোদ্ধা বজলুল মজিদ চৌধুরীর লেখা ‘রক্তাক্ত ৭১ ‘ বইয়ের মধ্যে সুনামগঞ্জের ডলুরা সীমান্তে কবরস্থ করা শহীদদের একটি তালিকা দেওয়া হয়। সেই তালিকায় “শহীদ আতাহার উদ্দিনে”র নাম দেখে সুনামগঞ্জের আরেক মুক্তিযোদ্ধা বিষয়টি জানান সেই মাকে।
অবশেষে ৪৩ বছর পর মা খুঁজে পেলেন তার সন্তানের কবর। যখন মা তার শহীদ ছেলের কবর জিয়ারত করছিলেন চোখ দিয়ে তার ঝরে যাচ্ছিল ঝর্ণা ধারা। একেই বলে মা। লক্ষ কোটি সালাম এই মাকে।
একাত্তরের ছেলে হারানো 43 বছর পর খুঁজে পেয়ে মা কবর জিয়ারতের সময় চোখের জলে ভাসিয়ে দিলেন মা কবর জিয়ারতের সময় ভাসিয়ে দিলেন মা

Leave a Reply

Translate »