দিয়াগো মারাদোনার জীবনী | Diego Maradona Biography in Bengali

দিয়াগো মারাদোনা আর্জেন্টিনার কিংবদন্তি ফুটবলার যাকে সমস্ত ফুটবল জগৎ ফুটবলের বরপুত্র বলে মানে। তার নিপুর ফুটবল খেলার কৌশল দেখে বিমোহিত ছিল সমস্ত ফুটবল বিশ্ব তার পায়ের জাদুতে ফুটবল খেলা দেখার আনন্দই ছিল অসাধারন স্মৃতিময়।

দিয়াগো মারাদোনা সেই সব কিংবদন্তি ফুটবলারদের মধ্যে প্রথম যিনি খুব সাধারণ ফুটবল দল নিয়েও নিজের নিপুন যোগ্যতায় দেশের হয়ে ফুটবলের সর্বোচ্চ ট্রফি ওয়ার্ল্ড কাপ নিজের নামে ও দেশের নামে করে নিয়েছেন।

ক্রিস্টিয়ানো রোনাল্ডোর জীবনী Biography of Cristiano Ronaldo

মারাদোনা ১৯৮৬ সালে মেক্সিকোতে অনুষ্ঠিত হওয়া বিশ্ব ফুটবলের সর্বোচ্চ আসরে খুবই সাধারণ মানের একটি জাতীয় দল নিয়ে তার জীবনের সবথেকে বড় উপহারটি তার দেশকে তিনি দিয়েছিলেন তা হলো ফুটবল বিশ্বকাপ। একজন ফুটবল খেলোয়াড়ের জীবনে এর চাইতে আর বড় প্রাপ্তি আর হতে পারে না। কারণ সব খেলোয়াড় এ তার জীবনের সেরাটা দিয়ে তার দেশকে ওয়ার্ল্ড কাপ ট্রফি এনে দিতে আপ্রাণ প্রচেষ্টা করেন।

বাঙালি অভিনেত্রী বিগ বস জিততে প্যান্টেই হিসু করলেন
দিয়াগো মারাদোনার জীবনী
বিশ্বকাপ বিজয়ের ট্রফি হাতে মারাদোনা wikipedia

Diego Maradona Facts in Bengali

১. তিনি মাত্র ১৭ বছর বয়সেই আর্জেন্টিনার জাতীয় দলে খেলার যোগ্যতা অর্জন করেন।
২. মারাদোনা দেশের হয়ে প্রথম বিশ্বকাপ খেলেন ১৯৮২ সালে।
৩. তার নেতৃত্বে আর্জেন্টিনা ১৯৮৬ সালে প্রথমবার বিশ্ব ফুটবলের কাপ বিজয় অর্জন করে।
৪. ১৯৮৬ বিশ্বকাপে তার বহুল আলোচিত ঈশ্বরের হাতে দেওয়া গোলটি হয় ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে।
৫. তিনি ছিলেন একজন নির্ভিক সহৃদয় ব্যাক্তিত্ব তিনি তার অপছন্দের বিষয়ে সরাসরি সমালোচনা করতেন।
৬. তিনি ছিলেন একজন খাঁটি দেশপ্রেমিক দেশের খেলায় তার উপস্থিতি গ্যালারিতে ছিল নিয়মিত।
৭. তার খেলা চারটি বিশ্বকাপ হলো ভেনু হচ্ছে ১৯৮২ স্পেন, ১৯৮৬ মক্সিকো, ১৯৯১ পর্তুগাল, ১৯৯৪ ইউনাইটেড স্টেটস

মাইকেল মধুসূদন দত্ত জীবনী – Michael Madhusudan Dutt Biography in Bengali

দিয়াগো মারাদোনার জীবনী
??????????????????????

দিয়েগো মারাদোনার মৃত্যু

বিশ্ব ফুটবলের রাজপুত্র দিয়েগো মারাদোনার মৃত্যু হয় ৫ নভেম্বর ২০২০ সালে (৬০ বছর বয়সে) তার নিজ বাস ভবনে হার্ট এটাকে তার মৃত্যু হয়। তার কিছু দিন পূর্বেই তিনি হসপিটালে ভর্তিহন শারীরিক অসুস্থতা নিয়ে। বাড়ি ফিরে আসার কিছুদিন পরেই আসে তার এই অকাল চলে যাওয়ার মৃত্যু সংবাদ।

তার প্রয়ানে স্তম্ভিত হয়ে যায় গোটা ফুটবল জগৎ তার অনুরাগী ভক্তরা সারাবিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে আর্জেন্টিনায় ছুটে আসেন তাকে দেখার জন্য । তার দেশ আর্জেন্টিনায় জাতীয় শোকদিবস ঘোষণা করা হয়। পেলে,মেসি, রোনাল্ডো, ও আরও কিংবদন্তি ফুটবলাররা তার চলেযাওয়ায় শোক প্রকাশ করেন।

Leave a Reply

Translate »