বিদ্যুৎ উৎপাদনে অভিনব প্রযুক্তি আবিষ্কার ইসরায়েলের

নবায়নযোগ্য শক্তি সংরক্ষণে অভিনব প্রযুক্তি আবিষ্কার করেছে ইসরায়েলের একটি প্রতিষ্ঠান। সৌরশক্তি সঞ্চয় করে উৎপাদিত হচ্ছে বিদ্যুৎ। যাতে কাঁচামাল হিসেবে ব্যবহৃত হচ্ছে পানি ও বায়ু। জীবাশ্ম জ্বালানির বিকল্প হিসেবে এই প্রযুক্তিতে সম্পূর্ণ পরিবেশবান্ধব উপায়ে বিদ্যুৎ উৎপাদন সম্ভব বলে জানিয়েছেন উদ্যোক্তারা।

ইসরায়েলের দক্ষিণের পাহাড়ি এলাকায় বিদ্যুতের প্রধান উৎস সৌরশক্তি। তবে কিববুৎজ নামের ছোট একটি অঞ্চলে দেখা যায় অন্য চিত্রও। দিনের বেলা সৌরশক্তির ওপর নির্ভর করলেও রাতে বিদ্যুৎ উৎপাদনে নতুন এক প্রযুক্তি ব্যবহার হচ্ছে অঞ্চলটিতে। সৌর প্যানেলের অতিরিক্ত শক্তি মজুদ রেখে ব্যবহার করা হয় তা। মাটির নিচে থাকা ট্যাংকের বায়ু ঘনীভূত করা হয় পানির সাহায্যে। সেই বায়ু টারবাইনে দিয়ে উৎপাদিত হয় বিদ্যুৎ। অগউইন্ড এনার্জি নামক তেল আবিব ভিত্তিক একটি কোম্পানি চালু করেছে এ প্রকল্প।

জীবাশ্ম জ্বালানির ওপর নিভর্রশীলতা কমিয়ে নবায়নযোগ্য শক্তির ওপর গুরুত্ব দিচ্ছে বিশ্ব। তবে নবায়নযোগ্য শক্তি সংরক্ষণ ছাড়া টেকসই প্রযুক্তি সম্ভব না বলে জানিয়েছেন এ প্রকল্পের উদ্যোক্তারা। ব্যাটারির মাধ্যমে সঞ্চয় করে রাখা গেলেও তা পরিবেশ বান্ধব নয় বলে দাবি তাদের। এছাড়া ব্যাটারির সক্ষমতা কিছুটা বেশি হলেও খরচের দিক থেকে সাশ্রয়ী অগউইন্ডের প্রকল্প।

৩৮৬ মিলিয়ন ডলারের মূলধন নিয়ে মাঠে নেমেছে অগউইন্ড এনার্জি। ভবিষ্যতে প্রকল্প সম্প্রসারণের পরিকল্পনা তাদের। এই প্রযুক্তি ব্যবহারে প্রতি কিলোওয়াট ঘণ্টায় গড়ে আড়াইশ ডলার খরচ হবে। ব্যবহারকারীর সংখ্যা বাড়লে আগামী বছর ২০০ ডলারে নেমে আসতে পারে খরচ।

 

 

Leave a Reply

Translate »