সোশ্যাল মিডিয়ার মার্কিন নাগরিক সেজে ডলার প্রতারণা লোভনীয় অফার দেখায় এই প্রতারণা থেকে সাবধান।

এই চক্রটি সারা বাংলাদেশসহ সারা, পৃথিবী মানুষের কাছে এরকম লোভনীয় এবং সেক্সুয়াল অপার দিয়ে বিভিন্ন মানুষকে হয়রানি করছেন । এরা সাধারণত g-mail facebook twitter অর্থাৎ সোশ্যাল মিডিয়ায় এই সমস্ত প্লাটফর্মে লোভনীয় ও সেক্সচুয়াল লোভনীয় অপর দিয়ে সহজ সরল মানুষকে হয়রানি করছে। এই চক্রটি মূলত চট্টগ্রাম কেন্দ্রিক দেখা যাচ্ছে যে চট্টগ্রামের ব্যাংক এবং মোবাইল নাম্বার এবং ওই এলাকার স্থানীয়দের ছবি দিয়ে সাধারণত এই কাজটি করছে আর যাদের সাবজেক্ট হিসেবে উল্লেখ করা হয়েছে তারা মূলত সেনাবাহিনীতে চাকরি করে কিন্তু তাদের কিছু ছবি ডাউনলোড এবং ডাউনলোড করে তাদের নাম ব্যবহার করে মূলত এই কাজটি এই বাংলাদেশের থার্ড পার্সন লোভী বাটপার কাজটি করে যাচ্ছে ।কিন্তু ওই সার্জন এবং সেনাবাহিনী এটা জানে না যে তাদের ছবি ব্যবহার করে এই অপরাধ কাজ করে যাচ্ছে। এরা মূলত প্রথমে gmail facebook id টার্গেট করে কালেকশন করে এরপর হাই হ্যালো মেসেজ এবং লোভনীয় পর পাঠান থেকে যে কেউ নক করলে তখন তার পিছনে আছতে আছতে লেগে থাকে তাদের দীর্ঘমেয়াদি পরিকল্পনা নিয়ে আগায় এবং টার্গেট নেয় যখন তাদের লোভনীয় অপরাধ পা দেয় তখন তারা তার সাথে ডেকে পড়ে উঠে।

তারা সাধারণত অসম্ভব আকাশ কুসুম লোভনীয় অপরাধ এবং সেক্সুয়াল অপার দেয় জেন্ডার ভেদে তারা এই কাজটি একটি চক্র করে যাচ্ছে দীর্ঘদিন ধরে। মূলত বাংলাদেশের সুর বাটপারের অভাব নাই বিভিন্ন কৌশলে তারা এই চক্রটি বিভিন্ন লবণে ওপর দিয়ে ভাতে পা ফেলতে থাকে।বিশ্বাস করানোর জন্য তারা বিভিন্ন ডকুমেন্ট সার্টিফিকেট ও ইমেজ এবং সেক্সুয়াল এবং লোভনীয় করে কথাগুলো পর্যায়ক্রমে বলতে থাকে।

এদের যথ উপযুক্ত বিচার চাই এবং এদেরকে তল্লাশি করে রিমান্ডে নিতে হবে এ ব্যাপারে আরো অনেকগুলো ভিডিও আছে youtube google-এ সার্চ দিলে দেখতে পারেন নিচে ভিডিও লিংকটি দেওয়া হলো।

অভিযোগ নং ১ -banglanews24.com

রাজধানীর মিরপুর-১০ নম্বর এলাকার বেনারসি শাড়ি ব্যবসায়ী শাহ মান্না। সম্প্রতি এক মেইলের মাধ্যমে জানতে পারেন তার ঠিকানায় ২৫ লাখ ডলার ভর্তি বাক্স পাঠিয়েছেন এক ‘মার্কিন নারী সেনা’।

বাক্সটি রয়েছে একটি কুরিয়ার কোম্পানিতে। সেটি ছাড়িয়ে নিতে খরচ করতে হবে ৫৫ হাজার টাকা। দেশি-বিদেশি নারীরা তাকে এ অর্থ নিতে চাপ দিচ্ছেন উল্লেখ করে বুধবার (২১ সেপ্টেম্বর) রাতে মিরপুরের পল্লবী থানায় অভিযোগ করেন তিনি।

প্রতারণার অভিযোগে শাড়ি ব্যবসায়ী মান্না উল্লেখ করেন, দেশি-বিদেশ কয়েকজন নারী তাকে প্রতিনিয়ত ফোন করে ডলারের বাক্স ছাড়িয়ে নেওয়ার কথা বলছেন। এজন্য একটি বেসরকারি ব্যাংকের অ্যাকাউন্টে ফি বাবদ ৫৫ হাজার টাকা জমা করতে বলা হয়েছে তাকে। অভিযোগটি তদন্তনাধীন বলে শুক্রবার (২৩ সেপ্টেম্বর) তিনি নিশ্চিত করেন।

ব্যবসায়ী শাহ মান্না অভিযোগে জানান, কয়েক দিন আগে তার ফেসবুক মেসেঞ্জারে এক অপরিচিত নারী ই-মেইল অ্যাড্রেস পাঠান। দ্রুত সেই ঠিকানায় যোগাযোগ করতে বলা হয় তাকে। যোগাযোগ করা হলে ওই নারী জানান, তিনি একজন মার্কিন সেনা সদস্য। বর্তমানে দায়িত্ব পালন করছেন ইয়েমেনের রাজধানী সানায়। সেখানে গৃহযুদ্ধ চলছে। তার কাছে ২৫ লাখ ডলার সংরক্ষিত আছে। কারও সঙ্গে যোগাযোগ না থাকায় এসব অর্থ ‘টিএনটি ইন্টারন্যাশনাল কুরিয়ার সার্ভিস’ নামে একটি প্রতিষ্ঠানের মাধ্যমে মান্নাকে দিতে আগ্রহ প্রকাশ করেন ওই নারী।

গত শুক্রবার (১৬ সেপ্টেম্বর) মান্নার কাছে আরও একটি ই-মেইল আসে। এতে বলা হয়, মান্নার ঠিকানায় একটি ডলার ভর্তি বাক্স পাঠানো হয়েছে। ৭৪০ ডলার ফি দিয়ে বক্সটি যেন তিনি নিয়ে নেন। কুরিয়ার কোম্পানির একটি মেমো মান্নার ই-মেইলে যুক্ত করে দেওয়া হয়।

এর দুদিন পর অর্থাৎ গত রোববার (১৮ সেপ্টেম্বর) চট্টগ্রাম বিমান সংলগ্ন টিএনটি কুরিয়ার সার্ভিসের কর্মকর্তা পরিচয় দিয়ে এক নারী তাকে একাধিক নম্বর দিয়ে কল করেন। মান্নাকে বলা হয় ফি বাবদ ৫৫ হাজার টাকা দিয়ে পার্সেলটি ছাড়িয়ে নিতে। বেসরকারি ব্যাংকের অ্যাকাউন্টের নম্বর দিয়ে এ ফি জমা দিতে বলা হয় তাকে। টাকা জমা দিলেই মান্নার ঠিকানায় পার্সেল চলে যাবে বলেও জানানো হয়।

শাহ মান্না বাংলানিউজকে বলেন, প্রতিনিয়ত আমাকে ফোন করে ডলার নেওয়ার প্রলোভন ও চাপ দেওয়া হচ্ছে। আমি চাই এই প্রতারক চক্রের যেন দৃষ্টান্তমূলক শাস্তি হয়।

চট্টগ্রাম থেকে মান্নাকে দেওয়া ফোনের একটি রেকর্ডিং রয়েছে বাংলানিউজের হাতে। এতে শোনা যায়, ওই নারী মান্নাকে বার বার বলছেন, টাকা পাঠান আপনার ঠিকানায় পার্সেল পাঠিয়ে দেওয়া হবে। এ সময় মান্না তাকে বলেন, আপনি আমাকে ঠিকানা দিন, কুরিয়ার সার্ভিসের ডকুমেন্ট দিন। কিন্তু তাকে বলা হয়, ঠিকানা পরে দেওয়া হবে; আগে টাকা পাঠান।

এ ঘটনায় পল্লবী থানায় মান্নার করা অভিযোগের কপিও আছে বাংলানিউজের হাতে।

পল্লবী থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ও অভিযোগের তদন্তকারী কর্মকর্তা খালিদ হাসান বাংলানিউজকে বলেন, বুধবার একটি অভিযোগ পেয়েছি। তদন্ত চলছে। এ চক্রের কয়েকটি মোবাইল ফোন নম্বর হাতে পেয়েছি। এ ব্যাপারে সাইবার ক্রাইমে যোগাযোগ করা হবে।

তাদের পর্যায়ে কর্মী মেসেজগুলো নিচে লিংক দেওয়া হলো জিমেইলে দেওয়া,  এভাবে তারা মূলত পর্যায়ক্রমে মেসেজ দিয়ে সাধারণ মানুষকে টার্গেটের পরিণত করে-

Sgt.Ames Lloyd <sgtbaby90@gmail.com>

Hello dear,
My name is Sgt.Ames Lloyd, I am 32 years of age and a citizen of the united state of America U.S , i was born in united state of America, thank you for accepting my Email Address, most times we are not allowed to use Facebook due to the nature of our work and restrictions, we can talk here as much as we can, whenever we are less busy at work.
Thanks and remain blessed.
Attached below are my pictures.

Sgt.Ames valecia sgtbaby90@gmail.com

Sat, May 28, 12:56 PM

to me
My Dearest,
I am more than happy with your reply to my mail.
Notwithstanding, I’m looking for a serious relationship and a business partner, one who is serious, honest, trustworthy and reliable, thereafter my aims are achieved, I believe we could go far in life if you accept to be my business partner in this deal,I am a Sgt Nurse to the United state Army here in Syria. I have made up my mind to relinquish the Job and relocate for the sake of my life, I guess working here is no longer safe for me. During one of our rescue Mission we came across a safe box containing huge amount of money that belongs to the supporters of  overthrow government of Syria and terrorist group, which we believe it was money meant for buying Highly Prohibited Weapons, Firearms and Missiles, As you may know, we can not return this money back because the system of government here is corrupted, and on that rescue mission came to agreement that the money be shared among us which we did.So as we shared the money, out of the total fund my share was $2.5 million US (two million five hundred thousand united state dollars), right now I am seeking your assistance to evacuate my share of the money to your place as quickly as possible, at the moment I’m deeply afraid of losing the funds here due to level of attacks on us everyday,I’m seeking your assistance to receive my share of the money from  (Senegal UBA Bank) to your own country, I want you to assure me that you will keep the money safe till i come over to your country to meet you and start investing the money in a good business there in your country.
It’s clear to me that you might be scared of this proposal, but i want to let you know that i have made solid arrangements with UBA Bank Senegal from Syria for security purpose,

I have decided to compensate you with 40% out of the total money immediately my Fund gets you, and you will also take 10% for orphanage homes in your country,

While the rest of the balance 50% will be my investment capital, Please I don’t want you to discuss this matter to a third party, if you don’t want to be a party to this business,
please delete.

Note; I do not know how long I’ve got to stay here, It’s due to the survival of two bomb attack in our health center which prompted me to search for a reliable and trustworthy person to help me receive my fund, As soon as you receive my fund into your account, i will come to your country for my Investment Project and also to start a new life.
I hope my explanation is very clear,
While waiting to receive your positive reply.

On Fri, May 27, 2022 at 10:24 AM Realhealth world <katewillers99@gmail.com> wrote:
Where are you from?
On Fri, May 27, 2022 at 3:09 PM Sgt.Ames valecia <sgtbaby90@gmail.com> wrote:
Hello dear,
My name is Sgt.Ames Lloyd, I am 32 years of age and a citizen of the united state of America U.S , i was born in united state of America, thank you for accepting my Email Address, most times we are not allowed to use Facebook due to the nature of our work and restrictions, we can talk here as much as we can, whenever we are less busy at work.
Thanks and remain blessed.
Attached below are my pictures.

Hello dearest one,
God protection and how are you, hope all is well with you ?
It is a very joyful thing to break this good news to you,
Again,i want to inform you that i have successfully moved to Germany where i am living now with my new partner from Senegal Dakar West Africa who was able to assist me to complete.
My new partner is from Senegal, Dakar and we are living in Germany.
That is why I keep the money with the ATM office there in Senegal that works with the ( UBA Bank ) United bank for Africa where the money was deposited. But, due to the willingness and acceptance  you showed during the course of my pains I have compensated you and show my gratitude to you with the sum of $300,000.00 (Three Hundred Thousand US Dollars).
Please accept this little gift because it is a gift from my heart,
I instructed the bank to roll the funds on the ATM card for security reasons,
you can use the ATM card to withdraw money from any ATM machine world.
This vow I made to myself about compensating you has been in my mind and I want to fulfill it to you though I did not tell you what was in my mind, the bank said that you can receive the card and use it anywhere in the world.
Contact the Global ATM Alliance directly with this information.

Name: GLOBAL ATM VISA CARD SERVICE DEPARTMENT
Office Address: Dakar, Route des Almadies, Zone 12 lot D (DAKAR SENEGAL).
Email Address: …. (apexfinance61@gmail.com)
Telephone: ……….. +221705185995.
Officer In charge:    Mr Iqbal Pervez..

Ask them to send you the ATM card and the pin code of the ATM card that I gave to you as compensation, So feel free and get in touch with the ATM office  and instruct them where to send you the ATM card so that you can start to withdraw the money.
Please do let me know immediately you receive it, so that we can share the joy after all the sufferings at that time,
I had given instructions to the ATM card office on your behalf to release the ATM card which I gave to you as compensation.

I’m glad you got the letter but it’s about how many people you are issuing the same letter to and how many people want to participate in this project or how many people want to distribute this project. Hope this is definitely not part of any deception. My details are as follows;

1)  Your full Names:…. 
2)  Your Country ……… Bangladesh
3)  Your Address:…….

387/2, Free School St, Dhaka 1205,

Dhaka Free School Street, Dhanmondi, Dhaka Bangladesh

4)  Your ID card copy:.
5)  Your Phone Number

 

 

6)  Your Occupation:..Manager (Hospital)
7)  Your Age:………..43

Please send the below information to me urgently.

Inbox

Sgt.Ames valecia sgtbaby90@gmail.com

Fri, May 27, 2:37 PM

to me

please,I have decided to compensate you with 40% out of the total money immediately my Fund gets you, and you will also take 10% for orphanage homes in your country,

Please send the below information to me urgently.

Hello,
How are you today? I hope you are strong and healthy? I really appreciate the effort and courage for making time to write to me once again. The terms of this letter are very simple and understandable. Nevertheless, I want you to trust and believe me when I say that there is nothing to worry about in this deal. Honestly I have made an arrangement with the UBA bank manager in Senegal to transfer the fund,Please put away fear or doubt and make up your mind to help me in this deal, I promise you will not regret being part of it. I pray that God will give you more grace and the courage to make up your mind.

So kindly send your full details so that i will furnish you with the procedures to follow,
1)  Your full Names:…………………
2)  Your Country ……………………
3)  Your Address:…………………..
4)  Your ID card copy:.
5)  Your Phone Number ……………
6)  Your Occupation:………………..
7)  Your Age:……………………..……

I’m looking forward to receiving your immediate positive reply.

আসল বাটপার চিটাগাং এর রিফাত মন্ডল

Facebook Notice for EU! You need to login to view and post FB Comments!

Leave a Reply Cancel reply